অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সাহায্যার্থে আমি সব কিছুই করব: মাইকেল ক্লার্ক

0
অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সাহায্যার্থে আমি সব কিছুই করব: মাইকেল ক্লার্ক

অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সাহায্যার্থে আমি সব কিছুই করব: মাইকেল ক্লার্ক

সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক অবসর ভেঙ্গে পুনরায় অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলার প্রস্তাব দিয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারীতে তৎকালীন অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ নিষিদ্ধ হওয়ার পর ভেঙ্গে পড়া দলকে টেনে তুলতে সাহায্য করার লক্ষ্য নিয়ে বিনা পারিশ্রমিকে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলার প্রস্তাব দিয়েছেন ক্লার্ক।

দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তৃতীয় টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায় স্বীকার করার পর স্মিথ এবং সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের নেতৃত্ব কেড়ে নেয়া হয় এবং ক্রিকেটে এক বছর নিষিদ্ধ করা হয়।

সিডনির সানডে টেলিগ্রাফ পত্রিকাকে ৩৭ বছর বয়সী ক্লার্ক বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সাহায্যার্থে আমি সব কিছুই করব।’

তিনি বলেন, ‘বয়স বয়সই। ১৭ বছর কি খুব তরুণ? বয়সকে আমি কখনোই পাত্তা দেইনি। ব্র্যাড হগ ৪৫ বছর বয়সে খেলেছেন বয়স কত তা নিয়ে আমি চিন্তা করিনা। আমি মনে করি এটা প্রতিশ্রতি ও উৎসর্গের বিষয়। বিষয়টা পুনরায় মোটরসাইকেলে চড়ার মত। আমি সব সময়ের মতই ফিট ও সুস্থ।’

চলমান ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) অস্ট্রেলিয়ার নাইন নেটওয়ার্ক-এর ধারভাষ্যকার হিসেবে বর্তমানে ভারতে অবস্থান করা সাবেক এ ব্যাটসম্যান বলেন, তিনি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার (সিএ) প্রদান নির্বাহী জেসম সাদারল্যান্ডের কাছে বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন। তবে কোন জবাব পাননি।

১১৬ টেস্ট খেলে ২০১৫ সালে অবসর নেয়া সাবেক এ অধিনায়ক বলেন, তার অভিজ্ঞতা ধুকতে থাকা দলটির জন্য মাঠের ভিতরে-বাইরে সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে।

পত্রিকাটিকে তিনি বলেন, ‘ক্রিকেটে ভাল-খারাপ সব কিছু অভিজ্ঞতাই আমার আছে। এই তরুণ খেলোয়াড়দের সাহায্য করার অভিজ্ঞতা আমার আছে এবং আমাদের সঠিক ফোকাস হওয়া উচিত অন্য খেলোয়াড়রা প্রস্তুত হয়ে উঠে না আসা পর্যন্ত তাদেরকে দেখভাল করা।’

সিএ’র দেয়া শাস্তির বিরুদ্ধে আপিল করবেন না বলে গত সপ্তাহে জানিয়েছেন স্মিথ, ওয়ার্নার ও নয় মাসের নিষেধাজ্ঞা পাওয়া বোলার ক্যামেরুন ব্যানক্রফট। অর্থাৎ আাগমী মার্চের আগে অস্ট্রেলিয়ার হয়ে মাঠে নামতে পারছেন না স্মিথ ও ওয়ার্নার। উইকেটরক্ষক টিম পাইনকে অধিনায়ক নির্বাচন করা হয়েছে।

ক্লার্ক বলেন, বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারী অসি দলকে কয়েক বছর পিছিয়ে দিতে পারে। দক্ষিণ আফ্রিকায় সিরিজ হেরে অস্ট্রেলিযা দল বর্তমানে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের চতুর্থ স্থানে রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ‘এ নিয়ে আমি চিন্তিত নই। আমি চাইনা আমাদের অবস্থা ওয়েস্ট ইন্ডি দলের মত হোক। আমরা পরবর্তী পাঁচ বছরের কথা বলছিনা। পরবর্তী ছয় মাসের কথা বলছি এবং এখনই এ সমস্যার সমাধান করা দরকার। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া আমাকে বললে, সাহায্যার্থে আমি সব কিছু করব।’ বাসস।

Leave A Reply

Pinterest
Print