কর্মক্ষেত্রে দুশ্চিন্তামুক্ত থাকতে চান?

0

it-4
রকমারি ডেস্ক:
কর্মক্ষেত্রে দুশ্চিন্তামুক্ত থাকা অবশ্যই প্রয়োজন। কিন্তু নানা কারণে, যেমন অভ্যন্তরীণ পলিটিক্স, আন্তরিকতাহীন কলিগ, বিরক্তিকর পরিবেশ, স্বল্প বেতন ইত্যাদি বিষয়ে আপনি চিন্তিত থাকতে পারেন। ফলে আপনার কর্মের স্পৃহা কমে যেতে বাধ্য। যার জন্য সর্বোপরি আপনার কাজের ক্ষতি হতে পারে। অথবা এমনও হতে পারে আপনি আপনার ব্যক্তিগত বা পারিবারিক কোনো কারণে দুশ্চিন্তাগ্রস্থ। এমতাবস্থায় কর্মক্ষেত্রে এরূপ দুশ্চিন্তামুক্ত থাকতে যা করবেন:

১. বেশি বেশি খান :
বেশি বেশি খেলে চিন্তার হার শতকরা কমে যায় বলে মনোবিজ্ঞানীরা বলেছেন। অফিসে আপনি যদি এমন দুশ্চিন্তাগ্রস্ত হয়ে পড়েন তাহলে চিন্তামুক্ত থাকতে এই পদ্ধতিটি অবলম্বন করতে পারেন। মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে একটু পর পর এটা-ওটা খান। নিজেকে ভালো খাবার দিয়ে ট্রিট দিন।

২. স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করুন :
হতে পারে আপনার চারপাশে অনেক ধরনের ঝামেলা রয়েছে। সেদিকে মনোযোগ না দিয়ে কাজের বিষয়টিতে মনোযোগ দেয়ার চেষ্টা করুন। কিছুই হয়নি বলে স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করুন। দেখবেন চিন্তা কিছুটা হলেও কমেছে।

৩. হালকা মেডিটেশন করুন :
কাজে মনোযোগ আনার জন্য এবং কর্মক্ষেত্রে দুশ্চিন্তামুক্ত থাকার জন্য প্রয়োজনে হালকা মেডিটেশন করে নিতে পারেন। এতে করে আপনার মানসিক রিফ্রেশমেন্ট আসবে এবং আপনি কাজের ক্ষমতা ফিরে পাবেন।

৪. কলিগদের সাথে সহজ আচরণ করুন :
আপনার মনে নানা ধরনের দুশ্চিন্তা থাকতে পারে সেসব বিষয়কে একেবারে পাত্তা না দিয়ে কলিগদের সাথে বেশি করে মেশার চেষ্টা করুন। তাদের সাথে সম্পর্কগুলোকে সহজভাবে নেয়ার চেষ্টা করুন। এতে আপনার দুশ্চিন্তার প্রসারতা খানিকটা কমবে বলে আশা করা যায়।

৫. কাজের ফাঁকে গান শুনুন :
গান শোনাকে এক ধরনের মেডিটেশন বলা যেতে পারে। গান শুনলে মন অনেকটা ভালো হয়ে যায়, প্রফুল্ল হয়। কাজ করতে করতে আপনি ক্লান্ত হয়ে যেতে পারেন, আপনার দুশ্চিন্তা তৈরি হতে পারে। এমতাবস্থায় আপনি চাইলে কাজের ফাঁকে হালকা মিউজিকের গান শুনে নিতে পারেন। এতে করে মানসিক প্রশান্তি পাবেন।


Leave A Reply

Pinterest
Print