কাউনিয়ায় ঘুরে দাঁড়িয়েছে আলু চাষীরা

0

কাউনিয়া প্রতিনিধি,রংপুর : দিন পনের আগেও কনকনে শীত ও হিমেল ঠান্ডা অব্যাহত থাকার কারনে কোল্ড ইনজুরীতে রংপুরের কাউনিয়া উপজেলার বিস্তৃর্ণ আলু ক্ষেত লেট ব্রাইট রোগে আক্রান্ত হয়েছিল। কৃষি বিভাগের পরামর্শ ও প্রত্যক্ষ তদারকিতে উপজেলার শতাধিক আলু চাষী এখন তাদের আলু ক্ষেত নিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।
সরেজমিনে উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে দেখা গেছে, গত মৌসুমের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে বুকভরা আশা নিয়ে চাষীরা বিভিন্ন জাতের আলু চাষ করেছে। কিন্ত তাদের আশায় বাঁধা হয়ে দাড়ায় ঠান্ডা আবওহাওয়া। প্রায় প্রতিটি আলু ক্ষেতের বয়স চলছে ৪০ থেকে ৫০ দিন। কৃষকরা প্রথম সেচ ও সার প্রয়োগ করা আলু ক্ষেত লকলকিয়ে ওঠায় এবং আবহাওয়া প্রতিকুল থাকায় স্যাঁত স্যাঁতে গাছে ব্যাপক ভাবে লেট ব্রাইট (নাবী ধ্বসা) রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ে। কিন্ত বর্তমানে আবহাওয়া পরিবর্তন হওয়ায় আলু চাষীরা আবার খুশী মনে আলু চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ সাইফুল আলম জানান এ উপজেলায় কার্ডিনাল, এস্টাইক, লেডি রোজেন্টা, ডায়মন্ড, লরা, রোমানা বগুড়াই, দেশী শীল জাতের আলুর আবাদ বেশী। এছাড়া চরাঞ্চলের অনেক জমিতে আগাম আলু চাষ হয়। সারাই, হারাগাছ, কুর্শা, শহীদবাগ, বালাপাড়া ও টেপামধুপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে আলু আবাদ সবচেয়ে বেশী। মৌসুমের মাঝামাঝী সময়ে লেট ব্রাইট (নাবী ধ্বসা) রোগের প্রাদুর্ভভাব দেখা গেলেও এখন কৃষকরা সম্পূর্ণ শংকামুক্ত। উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানাগেছে, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ৫হাজার ২শ’ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল কিন্তু চাষাবাদ হয়েছে এর চেয়ে কম। কৃষি বিভাগ থেকে চাষীদের রোগ প্রতিরোধে নিয়মিত পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। প্রাননাথ চরের আলু চাষী হোসেন আলী জানান আলু ক্ষেত এখন অনেক ভালো তাছাড়া বাজারে দামও ভাল তাই আমরা খুশী মনেই আলু ক্ষেতের পরিচর্যা করছি।

Leave A Reply

Pinterest
Print