গুরুদাসপুর শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন-ভাতা নিশ্চিয়তার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

0

গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি: নাটোর জেলার চলনবিল অধ্যুষিত বিলচলন শহীদ শামসুজ্জো সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ নিয়ে হাইকোর্টের রিটের ফলে ১শ’ জন শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন-ভাতা উত্তোলন করতে পারছেন না। বিক্ষুব্ধ শিক্ষক-কর্মচারীরা বেতন-ভাতা তুলতে না পারায় রিট প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ, মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচী পালন করেছে।
আজ রোববার বেলা ১১টায় গুরুদাসপুর উপজেলা চত্বরে মানববন্ধন কালে অধ্যাপক আবু ইউনুস, একে আজাদ, মিজানুর রহমান বক্তব্য রাখেন। ওই সময় বক্তারা বলেন, প্রতিষ্ঠানটি সরকারী করনের পূর্ব মুহুর্ত পর্যন্ত মোঃ রেজাউল করিম অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্বে রত ছিলেন। জাতীয় করনের পর তিনি অফিসার ইনচার্জের দায়িত্ব পালন কালে রাষ্ট্রপতির আদেশ বলে গত ১১জুলাই আলী আশরাফ অধ্যক্ষ’র দায়িত্ব নিয়ে কলেজে যোগদান করেন। অধ্যক্ষ রেজাউল করিম ওই যোগদানের বিরুদ্ধে রিট করায় হাইকোর্ট শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন ও আর্থিক সংক্রান্ত ব্যাপারে অধ্যক্ষ আলী আশরাফকে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেছেন। ফলে কলেজে প্রশাসনিক জটিলতার পাশাপাশি শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা উত্তোলন অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। মানববন্ধনে বক্তারা সোমবার অনশনসহ রিট প্রত্যাহার না হওয়া করা পর্যন্ত ক্লাশ বর্জনের ঘোষনা দিয়েছেন।
যোগাযোগ করা হলে রিট আবেদনকারী অধ্যক্ষ রেজাউল করিম জানান, আলী আশরাফ সাহেবকে ৪ মাসের স্থগিতাদেশ প্রদান করেছেন হাইকোর্র্ট। ফলে আমি স্ব-পদে বহাল রয়েছি।
এব্যাপারে অধ্যক্ষ আলী আশরাফ জানান, স্থগিতাদেশের বিষয়ে আমার কাছে কোন পত্র আসেনি। তবে মৌখিক ভাবে শুনেছি।

Leave A Reply

Pinterest
Print