গোপালগঞ্জে মাকে বেঁধে রেখে ২ সন্তানকে হত্যা

0

গোপালগঞ্জ সংবাদদাতা: গোপালগঞ্জ জেলার সদর উপজেলার ভোজেরগাতী গ্রামে মায়ের হাত-পা বেঁধে রেখে রায়হান সরদার (১০) ও রইজ সরদার (৪) নামে দুই শিশু সন্তানকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা।

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে নিজ বসত ঘরের মধ্যে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত রায়হান সরদার ও রইজ সরদার মাদরাসা শিক্ষক ইউসুফ সরদারের ছেলে। রায়হান সরদার ভোজেরগাতী আব্দুর রউফ প্রাথমিক স্কুলে চতুর্থ শ্রেণির মেধাবী ছাত্র। তাদের বাবা ইউসুফ সরদার টুঙ্গীপাড়া উপজেলার গহওরডাঙ্গা মাদরাসায় শিক্ষকতা করেন।

ঘটনার সময় নিহতদের মা কুলসুম বেগম ঘরেই ছিলেন। দুইজন দুর্বৃত্ত তার হাত-মুখ বেঁধে রেখে ওই শিশুদের হত্যা করে বলে নিহতদের মা জানিয়েছেন।

এদিকে, এ ঘটনায় নিহতদের বাবা ও মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গোপালগঞ্জ সদর থানায় নিয়ে আসা হয়েছে বলে সদর থানার ওসি মো. সেলিম রেজা নিশ্চিত করেছেন।

গোপালগঞ্জে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন ও সহকারী পুলিশ সুপারসহ (সার্কেল) পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) একটি তদন্ত দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। তবে, কী কারণে এ শিশুদের হত্যা করা হয়েছে তা এখনও পুলিশ নিশ্চিত করে বলতে পারছে না। হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিয়ে অনেকটা ধুম্রজাল সৃষ্টি হয়েছে। কারণ এ বিষয়ে পরিবার ও প্রতিবেশীদের কেউ মুখ খুলছেন না।

তবে, কেউ কেউ মন্তব্য করছেন স্বামী ইফসুফ সরদার চাকরিজনিত কারণে বেশিরভাগ সময়ই এলাকার বাইরে থাকেন। এ সুযোগে স্ত্রীর সঙ্গে হয়তো বা হত্যাকারীদের অবৈধ কোনো সম্পর্ক থাকতে পারে।

গোপালগঞ্জে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ আল মামুন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, বিষয়টি প্রাথমিকভাবে তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আমরা আশা করছি দ্রুতই এ ঘটনার রহস্য উদঘাটন করা সম্ভব হবে।

Leave A Reply

Pinterest
Print