চট্টগ্রামের দেওয়ানহাট মোড়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সমাবেশ ও র‌্যালি

0

rally-2
চট্রগ্রাম প্রতিনিধি: যে জঙ্গিবাদের করাল থাবায় ধ্বংস হয়ে গেছে আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া, লিবিয়া ইত্যাদি একটার পর একটা মুসলিম দেশ সেই একই জঙ্গিবাদ হানা দিয়েছে আমাদের প্রিয় মাতৃভ‚মি বাংলাদেশে। এর বিরুদ্ধে কেবল সরকার বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একক প্রচেষ্টা নয় বরং আমাদের সকলকে সোচ্চার হতে হবে, ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। এই জঙ্গিবাদকে সমূলে উৎপাটন করে দেশকে রক্ষা করতে হবে আমাদেরকেই। এর জন্য কেবল শক্তি প্রয়োগ নয়, চাই আদর্শিক লড়াই। জঙ্গিদেরকে যেহেতু উৎসাহিত করা হয় কোর’আন-হাদিসের বিকৃত ব্যাখ্যা থেকে তাই কোর’আন-হাদিস থেকেই এর সঠিক ব্যাখ্যা উপস্থাপনের মাধ্যমে এই বিকৃত আদর্শের অসারতা প্রমাণ করতে হবে। প্রমাণ করে দিতে হবে এই পথে কেবল তারা দুনিয়াই হারাচ্ছে না, জাহান্নামের পথও সুগম করছে। গুলশান, শোলাকিয়ার ঘটনার পর থেকে অনেক রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। কিন্তু হেযবুত তওহীদ ২০০৯ সন থেকে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে নানা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। আর বিগত চার বছরে দেশের সর্বত্র সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ, অপরাজনীতি ও ধর্মব্যবসার বিরুদ্ধে ৪০ হাজারের উপরে পথসভা, জনসভা, সেমিনার করে, বই, পত্রিকা, হ্যান্ডবিল বিতরণ ইত্যাদি কার্যক্রম চালিয়েছে। হেযবুত তওহীদ বহুদিন থেকে বলে আসছে জঙ্গিবাদ নির্মূলের সঠিক আদর্শটি তাদের কাছে আছে, সেই আদর্শ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে পারলে আর কেউ যেমন জঙ্গিতে পরিণত হবে না তেমনই অনেক জঙ্গিও তাদের ভুল বুঝে এই ভ্রান্ত পথ ত্যাগ করবে।
জঙ্গিবাদ বিরোধী এই আদর্শ মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে বর্তমানে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে চলছে দেশব্যাপী সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ বিরোধী সুধী সমাবেশ ও র‌্যালি। এরই অংশ হিসাবে চট্টগ্রামের দেওয়ানহাট মোড়ে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসময় অংশগ্রহণ কারীদের হাতে জঙ্গিবাদ বিরোধী বিভিন্ন শ্লোগান সম্বলিত ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড লক্ষ্য করা যায়। অনুষ্ঠানে হেযবুত তওহীদের নিবেদিত প্রাণ কর্মীদের পাশাপাশি সর্বস্তরের শত শত জনসাধরণকে স্বতস্ফূর্তভাবে অংশ নিতে দেখা যায়।
আজ শুক্রবার সকাল ১০টায় চট্টগ্রামের পাহাড়তলী সি.ডি.এ মার্কেটর সামনে হেযবুত তওহীদের চট্টগ্রাম বিভাগীয় আমীর মো: সাইফুল ইসলাম এর নেতৃত্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে জঙ্গিবাদ বিরোধী একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি দেওয়ানহাট এলাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন হেযবুত তওহীদের বিভাগীয় আমীর জনাব শফিকুল আলম উখবাহ।
সভাপতি তার শুভেচ্ছা বক্তব্যে বলেন,প্রিয় জন্মভূমি বাংলাদেশ আজ জঙ্গিবাদে আক্রান্ত। আমরা বহু পূর্ব থেকেই এ আশংকা প্রকাশ করে আসছি সাম্যাজ্যবাদী পরাশক্তি এবং স্বার্থান্বেষী একটা গোষ্ঠী ধর্মের নাম ব্যবহার করে যেভাবে সহিংসতা ঘটাচ্ছে তাতে এ দেশ সিরিয়া,ইরাক, আফগানিস্তানের মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হতে পারে। জঙ্গি ইসুকে ব্যবহার করে তারা একটার পর একটা মুসলিম দেশ ধ্বংস করে দিচ্ছে। যে জঙ্গিবাদের করাল থাবায় ধ্বংস হয়ে গেছে আফগানিস্তান, ইরাক, সিরিয়া, লিবিয়া ইত্যাদি একটার পর একটা মুসলিম দেশ সেই একই জঙ্গিবাদ হানা দিয়েছে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশে।এর বিরুদ্ধে কেবল সরকার বা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একক প্রচেষ্টা নয় বরং আমাদের সকলকে সোচ্চার হতে হবে, দলমত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে হেযবুত তওহীদের জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে চলমান কার্যক্রমের সাথে একমত পোষন করে বলেন আমরা যেকোন মূল্যেই জঙ্গিবাদকে মকাবেলা করবোই। এছাড়াও তিনি সর্বস্তরের জনগনকে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সজাগ ও সচেতন থাকার আহবান জানান। তিনি আরো বলেন, সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ কোন ধর্মই সর্মথন করে না। কতিপয় স্বার্থান্বেষী আলেম নামধারী ধর্মব্যবসায়ী মোল্লা শ্রেণি ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে এদেশের তরুণদের জঙ্গিবাদের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। দীর্ঘ ২১ বছর ধরে হেযবুত তওহীদ ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা সর্বস্তরের মানুষের মাঝে তুলে ধরে আসছে এবং সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেন বতমান যে ইসলাম চলছে এটা আল্লাহ ও তার রসুলের (সা.) দেওয়া ইসলাম নয়। আমরা যেভাবে চলছি এভাবে যদি চলতে থাকি তাহলে আফগানিস্তান, সিরিয়া,মত আমাদেরও একই অবস্থা হবে। তাই আমি বলতে চাই এই টার্গেট শুধু দেশের বিরুদ্ধে নয় এই টার্গেট ইসলামেরও বিরুদ্ধে। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, গুলশান ও শোলাকিয়াতে যে ইসলামের নাম দিয়ে মানুষদেরকে হত্যা করা হলো এটা আল্লাহ্ এবং আল্লাহর রসূল (সা.) এর ইসলাম নয়। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সুধী সমাবেশ ও র‌্যালির আয়োজন করায় হেযবুত তওহীদকে তিনি ধন্যবাদ জানায় এবং মিডিয়া সহ সকল শ্রোণীর মানুষকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে স্বোচ্চার হওয়ার আহবান জানান। এছাড়া বক্তারা দেশের স্বার্থে, জাতির স্বার্থে জঙ্গিবাদবিরোধী গণপ্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য দেশবাসীকে আহবান জানান।
হেযবুত তওহীদের পাহাড়তলী থানা আমীর জনাব নাঈম উল্লাহ্ এর সঞ্চালনায় এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন হেযবুত তওহীদ সদস্য মো: ইয়াছিন আলী , রবিউল ইসলাম, মো: ইউসুফ, সোহেল রানা, ইকবাল হোসেন মো: ইয়ার আলী শিমুল, আজমল হোসাইন সহ আরো স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ প্রশাসনের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন, সংবাদ কাভারেজের জন্য বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার গণমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতি লক্ষ করা যায়।

Leave A Reply