”কুরবানি ঈদে গরুর সাথে আপনাদেরও কুরবানি করা হবে”

0

উড়ো চিঠি

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের পাঁচ বিশিষ্টজনকে দেয়া উড়ো চিঠিতে লেখা রয়েছে, ‘আগামী কুরবানির ঈদ আপনাদের জন্য শেষ ঈদ। একাত্তর সালে মীমাংসিত যুদ্ধাপরাধ নিয়ে আপনাদের অতিরিক্ত বাড়াবাড়ির কারণে ওইদিনই গরুর সাথে আপনাদেরও কুরবানি করা হবে। দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করায় তোমাদের জন্য জাহান্নাম নির্ধারিত রয়েছে। জীবনের যাবতীয় ইচ্ছা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে পূরণ করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া গেলো। নির্দিষ্ট সময়ের আগেই আমাদের পরিচয় প্রকাশ করা হবে।’
বৃহস্পতিবার দুপুরে ডাকযোগে চিঠিটি আসে নগরীর প্রবর্তক মোড়ের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল কার্যালয়ে। খ্যাতিমান সমাজ বিজ্ঞানী ও প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. অনুপম সেন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রতিদিন চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান রিয়াজ হায়দার চৌধুরী, গণজাগরণ মঞ্চ, চট্টগ্রামের সদস্য সচিব ডা. চন্দন দাশ এবং ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত বাঙালিকে এ হত্যার হুমকি দেয়া হয়।
চিঠিতে পাঁচজনকে সম্বোধন করা হয় এভাবে ‘চট্টগ্রামে ভারতের প্রধান দালাল ড. অনুপম সেন’, ‘চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আওয়ামী লীগের প্রধান দালাল ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী’, ‘চট্টগ্রামের সাংবাদিকদের প্রধান আওয়ামী দালাল রিয়াজ হায়দার চৌধুরী’, ‘আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল চট্টগ্রামের প্রধান দালাল শওকত বাঙালী’ এবং ‘গজামঞ্চের প্রধান দালাল ডা. চন্দন দাশ’।
এ বিষয়ে ড. অনুপম সেন বলেন, কে বা কারা একটি চিঠি পাঠিয়েছে। সেখানে আমিসহ পাঁচজনের নাম উল্লেখ আছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে অবহিত করেছি। চলমান জঙ্গিবাদির অপশক্তির অশুভ উত্থানের এই সময়ে হুমকি দিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করা প্রতিক্রিয়াশীল শক্তির পরিকল্পিত কর্মকাণ্ড। এসব হুমকি-ধমকিতে আমি মোটেও স্তব্ধ হব না।
অন্যদিকে রিয়াজ হায়দার চৌধুরী বলেন, এ ধরনের হুমকি অতীতেও পেয়েছি। প্রতিক্রিয়াশীল শক্তি ‍বারবার আমার উপর আঘাতের চেষ্টা করছে। এসব হুমকিতে আমি ভয় পাইনা। রাজাকার-আলবদর, জামায়াতসহ মৌলবাদী শক্তির আমাদের সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে। আমি লড়াই-সংগ্রামের পথ থেকে একচুলও বিচ্যুত হব না।
সিএমপি কমিশনার মো. ইকবাল বাহার বলেন, চিঠিটি কারা দিয়েছে, কোত্থেকে এসেছে এসব বিষয়ে আমরা তদন্ত করে দেখছি। তবে যেকোন নাগরিকের জীবন শঙ্কায় পড়লে তাকে নিরাপত্তা দেয়া আমাদের দায়িত্ব। দুজন উপাচার্যসহ পাঁচজনের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা সতর্ক আছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave A Reply

Pinterest
Print