চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙ্গর এলাকা থেকে ৫ লাখ ইয়াবাসহ সাত জন আটক

0

চট্টগ্রাম:  চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙর থেকে ৫ লাখ ইয়াবাসহ ৭ জনকে আটক করেছে র্যাব- ৭। বুধবার রাতে এমটি হেনা নামের একটি শিপিং ট্রলার থেকে ইয়াবার এ বিশাল চালানটি আটক করা হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে পতেঙ্গাস্থ র্যাব-৭ কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। আটক ইয়াবার মূল্য প্রায় ২০ কোটি টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে র্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মিফতাহউদ্দিন আহমেদ জানান, মায়ানমার থেকে সমুদ্র পথে আসা এ সব ইয়াবা সেন্টমার্টিন হয়ে চট্টগ্রামের দিকে আসছিলো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাদের দীর্ঘসময় নজরদারীর পর আটক করা হয়েছে নিশ্চিত করে র্যাব-৭ এর সহকারি পরিচালক এএসপি সোহেল মাহমুদ বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বঙ্গোপসাগরে বন্দরের বহির্নোঙ্গর এলাকায় একটি ট্রলারে তল্লাশি চালিয়ে ৫ লাখ ইয়াবা জব্দ করা হয়। এছাড়া এসময় ট্রলার থেকে সাতজনকে আটক করা হয়।’তিনি আরো বলেন, ‘মায়ানমার থেকে আনা এসব ইয়াবা চট্টগ্রামের সমুদ্র উপকূলে খালাস করার পরিকল্পনা ছিল।’এঘটনায় ট্রলারটি জব্দ করা হয়েছে ও মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান র্যাব কর্মকর্তা সোহেল মাহমুদ।আজ বৃহস্পতিবার সকালে পতেঙ্গাস্থ র্যাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে র্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়, গোয়েন্দা অনুসন্ধানের মাধ্যমে র্যাব-৭ জানতে পারে যে, একটি সংঘবদ্ধ মাদক ব্যবসায়ী চক্র দীর্ঘদিন ধরে মায়ানমার থেকে ইয়াবার বড় বড় চালান মাছ ধরার ট্রলারযোগে চট্টগ্রামে নিয়ে আসছে। তাদেরকে নীবিড় পর্যবেক্ষণে রেখে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে র্যাব জানতে পারে যে, ‘এমটি হেনা’ নামক একটি মাছ ধরার ট্রলার যোগে বিপুল পরিমান ইয়াবার চালান মায়ানমার হতে চট্টগ্রামের দিকে আসছে।এমন তথ্যের ভিত্তিতে র্যাবের একটি আভিযানিক দল অধিনায়ক লে. কর্নেল মিফতাহ উদ্দিন আহমদের নেতৃত্বে চট্টগ্রাম বন্দরের বর্হিনোঙ্গর থেকে ‘এমটি হেনা নামক ফিশিং ট্রলারকে ৭ জন জেলে এবং মাঝিসহ আটক করে।

পরবর্তীতে আটককৃত ট্রলারটিতে তল্লাশী চালিয়ে পানির ড্রামের গোপন কম্পার্টমেন্টের ভিতর সুকৌশলে লুকিয়ে রাখা ৫ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ২০ কোটি টাকা। ট্রলারটিতে সাধারণ ইঞ্জিনের পরিবর্তে বাসের শক্তিশালী ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। গ্রেফতারকৃতরা হল- মোঃ হান্নান (৪০), পিতা-আব্দুল মান্নান, আজাদ নগর, আলেকজেন্ডার, লক্ষীপুর,মোঃ লোকমান(৩৩), পিতা- মৃত আব্দুল খালেক, হারুন বাজার, আলেকজেন্ডার, লক্ষীপুর, মোঃ রাসেল(৩০), পিতা-মোস্তফা, চপলকন, কমলনগর, লক্ষীপুর, মোঃ ইলিয়াছ (১৮), পিতা-মোঃ মোস্তফা, বাকলিয়া, চট্টগ্রাম, মোঃ ওলিউল্লা (২১), পিতা- মোঃ ফজলুর রহমান, সুজন গ্রাম, আলেকজেন্ডার, লক্ষীপুর, মোঃ রিয়াজ (১৯), পিতা- মোঃ দুলাল, চরপালকন, কমলনগর, লক্ষীপুর ও মোঃ ওসমান (২০), পিতা- মোঃ ফয়জুল্লাহ, চর বসন, ভোলা।

Leave A Reply

Pinterest
Print