জলঢাকায় পুলিশি প্রহরায় এমপির বিক্ষোভ মিছিল: নিজ দলের কর্মীর নামে থানায় জিডি

0

শরিফুল ইসলাম প্রিন্স,জলঢাকা: নীলফামারীর জলঢাকায় পুলিশের বিশেষ প্রহরায় বিক্ষোভ মিছিল ও শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পন করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা। ২০ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্থানীয় এমপি’র বিরুদ্ধে অশালিন ভাষায় গলিগালাজ করার প্রতিবাদে উপজেলা শ্রমিকলীগের আয়োজনে সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার নের্তৃত্বে জলঢাকা কলেজ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটির সামনে ও পিছনে বিপুল সংখক পুলিশের উপস্থিতিতে পৌর শহর প্রদক্ষিণ শেষে মিছিল নিয়ে থানার ভিতরে গিয়ে এমপি’র নিরাপত্তা চেয়ে কেন্দ্রীয় যুবলীগ সদস্য ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুরের নাম উলে­খ করে একটি সাধারন ডায়রি করেছেন এ,কে আজাদ নামের এক এমপি সমর্থক। জিডি নং-১০৪৩ তারিখ ২০/০২/২০১৮ইং।
এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনাসহ আলোচনার ঝড় উঠেছে। শহরে হটাৎ র‌্যাব,পুলিশ ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতি দেখে আতংক ছড়িয়ে পড়ে এবং ব্যবসায়ীরা দোকান পাঠ বন্ধ করে।
অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়নের বিষয়টি স্বীকার করে থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান বলেন,নিরাপত্তার স্বার্থে মিছিলে পুলিশ দেওয়া হয়েছিল এবং এমপির নিরাপত্তা চেয়ে একজনের নাম উলে­খ করে থানায় সাধারন ডায়রী হয়েছে।
অভিযোগ অস্বীকার করে আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর বলেন,একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি মনোনয়ন প্রত্যাশি,আমাকে দমানোর জন্যই ষড়যন্ত্রমুলক এই জিডি।
এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আনছার আলী মিন্টু বলেন,কোন দিবস ছাড়াই স্থানীয় এমপি ক্ষমতা দেখানোর জন্য পুলিশি প্রহরায় বিক্ষোভ মিছিল করে জনগনের মাঝে যে আতংক সৃষ্টি করেছেন তা দলের জন্য শোভনীয় নয়। নিজ দলের একজন কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় জিডি করা ঠিক হয়নি। উপজেলা আ’লীগ এর তীব্র নিন্দা জানায়।
স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা বলেন,‘কে বা কাহারা জিডি করেছে আমি জানি না। এ বিষয়ে আমার কোন মন্তব্য নাই।’
উলে­খ্য,গত ১৬ ফেব্র“য়ারী উপজেলা বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের আয়োজনে এক সভায় অধ্যাপক গোলাম মোস্তফাকে ভুয়া মুক্তিযোদ্বা হিসেবে আখ্যয়িত করে কোন সময় যুদ্ধ করেছিল এবং কে কমান্ডার ছিলেন,তা একুশে ফেব্রুয়ারী শহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার আগেই জানতে চান কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা ও সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর। এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে পৌর শহরের উত্তেজনা বিরাজ করছিল।

Leave A Reply

Pinterest
Print