জলঢাকা-কিশোরগঞ্জ আংশিক আসনে পুর্বের ন্যায় বহাল রাখার দাবিতে মানবন্ধন

0

শরিফুল ইসলাম প্রিন্স, জলঢাকা: নীলফামারী-৩ (জলঢাকা-কিশোরগঞ্জ আংশিক) আসনে সংসদীয় আসন পুর্বের ন্যায় বহাল রাখার দাবিতে মানবন্ধন করেছে সংসদ নির্বাচনী এলাকা কিশোরগঞ্জ উপজেলার জলঢাকা আসনের সাথে সংযুক্ত ৩ ইউনিয়নের সাধারন মানুষ। বৃহস্পতিবার পুটিমারী, বড়ভিটা ও রণচন্ডি ইউনিয়নের আয়োজনে রংপুর-ডালিয়া মহাসড়কের বড়ভিটা বাজারে সকাল ১১ থেকে ১২ পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপি এ মানবন্ধন করে তারা। এসময় মানববন্ধনে একাত্বতা প্রকাশ করে ওই তিন ইউনিয়নগুলোর শতশত নারী-পুরুষ। মানববন্ধন করার ফলে মহাসড়কে যান চলাচলে বিঘœ সৃষ্টি হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন বড়ভিটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ইউনুছ আলী, বড়ভিটা স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মহির উদ্দিন বসুনিয়া, রণচন্ডি স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মুকুল হোসেন, বড়ভিটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি বাবু পরেশ চন্দ্র রায়, রণচন্ডি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য আফছার আলী বাদাউ, বড়ভিটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ৩ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি মোশারফ হোসেন,বড়ভিটা ইউনিয়নের আওয়ামী যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মহিমারঞ্জন রায় প্রমুখ। এ সময় মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, নির্বাচন কমিশন থেকে নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলাকে নীলফামারী ৩ ও নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার ৯ টি ইউনিয়ন ও নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলাকে সংযুক্ত করে সম্প্রতি নীলফামারী ৪ আসন ঘোষনা করে একটি খসড়া তালিকা প্রদান করা হয়। আমরা এই তিন ইউনিয়নের বাসিন্দা আগে যেভাবে জলঢাকা নির্বাচনী এলাকায় ছিলাম সেভাবেই আমরা থাকতে চাই। অবিলম্বে নির্বাচন কমিশনের সীমানা খসড়া অনুমোদন বাতিলের আহবান জানান বক্তারা। এ বিষয়ে কিশোরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস.এম মেহেদী হাসান বলেন, আসন পুর্ণ বিন্যাসের সিদান্ত নির্বাচন কমিশনের। এ বিষয়ে আমার কোন ভুমিকা নাই। উল্লেখ্য, নির্বাচন কমিশন সম্প্রতি, নীলফামারী-৩ (জলঢাকা-কিশোরগঞ্জ আংশিক) এলাকা থেকে ৩টি ইউনিয়ন বাদ দেওয়ার খসড়া সিদ্ধান্ত অনুমোদন হয়।

Leave A Reply

Pinterest
Print