তালতলীতে যৌতুকের দাবিতে গৃহবধূ নির্যাতন; মামলা প্রত্যাহারে হত্যার হুমকি

0

 

hira moni borguna

গৃহবধূ হিরা মনি।

বরগুনা প্রতিনিধি: পাঁচ লক্ষ টাকা যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে বেধড়ক মারধর করে রক্তাক্ত জখম করেছে পাষন্ড স্বামী। জেলার তালতলী থানার বগি ইউনিয়নের মালি পাড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে বরগুনা আদালতে নারী শিশু নির্যাতন আইনে স্বামী হোসেন মুন্সি সহ চারজনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছে নির্যাতিতা গৃহবধূ হিরা মনি। মামলা নংঃ এম-পি ৪৫০/১৬।
মামলাটি এজাহার হিসাবে নথিভুক্ত করার জন্য তালতলী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। ইতিমধ্যে একটি সিন্ডিকেট বাদী ও তার পরিবারকে মামলাটি প্রত্যাহারের জন্য হত্যার হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ১৬ আগস্ট স্বামী হোসেন মুন্সিসহ চারজন হিরা মনিকে বেধড়ক মারধর করে এবং পাঁচ লক্ষ টাকা যৌতুকের টাকার জন্য বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিতে থাকে। যৌতুকের টাকা হিরা মনি তার অসহায় পরিবার থেকে আনতে না পারায় পাষন্ড স্বামী গাবের মাঢাম দিয়ে অমানুষিকভাবে স্ত্রীকে মারধর করে এবং শরীরে বিভিন্ন অংশ রক্তাক্ত ও জখম করে এর পরে ওড়না পেছিয়ে মৃত্যু ঘটানোর জন্য তার গলায় ফাঁস লাগিয়ে দু’দিক থেকে টান দেয়। স্ত্রী হিরা মনির আর্তচিৎকারে আশপাশের লোকজন চলে আসলে আসামীরা তাকে আহত অবস্থায় রেখে পালিয়ে যায়।
গত ২৬ আগস্ট মামলাটি এজাহারভুক্ত হলেও স্থানীয় তালতলী থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
বরং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল ফরাজির আশ্রয়ে আসামী এলাকায় দাবিয়ে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এরই মধ্যে মামলার আসামী হোসেন মুন্সি বাদীর চট্টগ্রামে কর্মরত বড় ভাই সাংবাদিক আমিনুল হক শাহীনকে মুঠোফোনে মামলা প্রত্যাহার করার জন্য হুমকি দিয়ে আসছে। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ ইপিজেড থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন ভুক্তভোগী।
বিষয়টি নিশ্চিত করে ইপিজেড থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম জানান, অভিযোগের সত্যতা পেলেই আসামীদের বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

Leave A Reply

Pinterest
Print