দিনাজপুর ৬ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী ১৭ জন মাঠে নেমেছেন

0

নবাবগঞ্জ দিনাজপুর প্রতিনিধি: একাদশ জাতীয় নির্বাচনে দিনাজপুর ৬ আসনে আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য মোঃ শিবলী সাদিক সাবেক সংসদ সদস্য মোঃ আজিজুল হক চৌধুরী সহ বিএনপি, জাতীয় পার্টি, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন, ওয়ার্কার্স পার্টির ১৭ জন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা আসন্ন নির্বাচনে মাঠে প্রচার প্রচারণায় নেমেছেন। বর্তমান দিনাজপুর ৬ আসনের সংসদ সদস্য মো. শিবলী সাদিক নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক চেয়ে দিনাজপুর নবাবগঞ্জ, বিরামপুর, হাকিমপুর, ঘোড়াঘাট চার উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চল হতদরিদ্র মানুষের কাছে গিয়ে সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি প্রবীন আ.লীগ নেতা ডা. মোশারফ হোসেন, আমির হোসেন, সাদেকুল ইসলাম তারা জানান, দেশ স্বাধীনের পর দিনাজপুর ৬ আসনে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে যে উন্নয়ন হয়েছে তা কোন সরকারের আমলে হয়নি। তারা মনে করেন, আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক মনোনয়ন পাবে এবং জনগণের সাড়াও পাবেন ব্যাপক। এ বিষয়ে সংসদ সদস্য শিবলী সাদিকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমার সময়ে দিনাজপুর ৬ আসনে বিদ্যুৎ সহ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন প্রকল্প চোখে পড়ার মতো উন্নয়ন হয়েছে। তিনি পুনরায় জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে ৬ আসনের উন্নয়ন এগিয়ে থাকবে। এদিকে একই দল থেকে সাবেক সংসদ সদস্য মো. আজিজুল হক চৌধুরী সংসদ সদস্য পদ ফিরে পেতে ও মনোনয়ন পাওয়ার জন্য তিনিও চার উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রচারণা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মো. আতাউর রহমান মনোনয়ন পাওয়ার জন্য আগাম নির্বাচনী প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি জানান, আওয়ামী লীগ সরকার, উন্নয়নের সরকার। তাকে কেন্দ্রীয় দলের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেয়া হলে বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন। এছাড়াও বিরামপুর উপজেলার বাসিন্দা দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আলতাফুজ্জামান মিতা জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা হিসেবে মনোনয়ন পাওয়ার আশা রাখেন। তিনি বিভিন্ন স্থানে প্রচারণা সংবাদকর্মীদের নিয়ে মতবিনিময় সহ প্রচারণা চালাচ্ছেন। এছাড়াও বিরামপুর উপজেলার আ.লীগ নেতা মো. মিজানুর রহমান, খায়রুল ইসলাম রাজু, পারভেজ কবির, আবু হানিফ, নবাবগঞ্জ উপজেলার ১নং জয়পুর ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান আইনুল হক চৌধুরী, ঘোড়াঘাট উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতা মো. লুৎফর রহমান। এদিকে বিএনপির পক্ষ থেকে তিন জন প্রার্থী মনোনয়নের জন্য মাঠে নেমেছেন। এরা হলেন, দলের কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার মতিহারা গ্রামে। দীর্ঘদিন ধরে ডাক্তারদের সংগঠনের শীর্ষ পর্যায়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি সাংবাদিকদের জানান, কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত পেলে তিনি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন। অন্যদিকে দলটির দিনাজপুর জেলা কমিটির সাবেক সভাপতি ও বর্তমান নবাবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব মো. লুৎফর রহমান মিন্টু মনোনয়নের জন্য ইউনিয়ন থানা পর্যায়ের নেতাকর্মী নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় প্রচার চালাচ্ছেন। অন্যদিকে নবাবগঞ্জ উপজেলা বিএনপির নব নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক সাহাবুদ্দিন সুজন মনোনয়ন পাওয়ার জন্য বিভিন্ন এলাকায় প্রচারণা অসহায় মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ সহ দীর্ঘদিনের ওয়ার্ড ইউনিয়ন সহ উপজেলা নেতাকর্মীদের সাথে মিলেমিশে দলকে সুসংগঠিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন। দলের নেতৃবৃন্দরা জানান, বর্তমানে তরুন প্রজন্ম সাবেক ছাত্রদল নেতা সাহাবুদ্দিন সুজনকে জোটের পক্ষ থেকে মনোনয়ন দেয়া হলে তিনি বিজয়ী হবেন। অপরদিকে শরীক দলের বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর বর্তমান দিনাজপুর জেলা শাখার আমীর ও বিরামপুর উপজেলার বাসিন্দা মো. আনোয়ারুল ইসলাম মনোনয়নের জন্য দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। দলের সাবেক নবাবগঞ্জ উপজেলা আমীর ও বর্তমান নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, দেশ স্বাধীনের পর তার দল দুইবার জনভোটে নির্বাচিত হয়ে দিনাজপুর ৬ আসনে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কাজ করেছে। জোটের পক্ষ থেকে আনোয়ারুল ইসলামকে মনোনয়ন দেয়া হলে তার বিজয় কেউ ঠেকাতে পারবে না। এদিকে বাংলাদেশ ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের পক্ষ থেকে নবাবগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি ডা. মো. নুরে আলম ও ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা মঙ্গল সরেন মনোনয়নের জন্য প্রচারণা অব্যাহত রেখেছেন।

Leave A Reply

Pinterest
Print