ধামরাই, জয়পুরহাট ও রাজশাহীতে হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদবিরোধী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

0

সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতাসহ সকল প্রকার অন্যায়ের রিরুদ্ধে এবং সত্য ও ন্যায়ের পক্ষে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে সারা দেশে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে মানবতার কল্যাণে নিবেদিত আন্দোলন হেযবুত তওহীদ। এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার ধামরাই, জয়পুরহাট ও রাজশাহীতে আলোচনা ও মতবিনিময় সভা করেছে হেযবুত তওহীদ। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলো থেকে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো প্রতিবেদন অনুযায়ী বিস্তারিত সংবাদ-
ধামরাই, ঢাকা:
সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার কুল্লা ইউনিয়নের সিতি বাজারে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদবিরোধী আলোচনা সভা করেছে হেযবুত তওহীদ। সোমবার সন্ধ্যায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাধারণ জনগণকে নিয়ে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
কুল্লা ইউনিয়নের সেচ্ছাসেবক লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. লাল মিয়ার সাভাপতিত্বে এবং ধামরাই উপজেলা হেযবুত তওহীদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাসিবুর রহমান শাওন এর সঞ্চালনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কুল্লা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বদর উদ্দিন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন, কুল্লা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোতালেব হোসেন, কুল্লা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হরিপদ সরকার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বাদশা মিয়া, সোমবাগ ইউনিয়নের হেযবুত তওহীদের সভাপতি মোতালিব দেওয়ান। সভায় মূখ্য আলোচকের বক্তব্য রাখেন হেযবুত তওহীদের ধামরাই উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হেমায়েত হোসেন।
তিনি বলেন, “বিশ্বজুড়ে আজ সৃষ্টি হয়েছে ভয়াবহ আতঙ্ক। সবার মনে আজ বিরাজ করছে ইসলামের প্রতি ঘৃণা ও বিদ্বেষ। এর পেছনে প্রকৃতপক্ষে সা¤্রাজ্যবাদী শক্তিগুলো কাজ করছে। তারা চায় আল্লাহ-রসুলের বিরুদ্ধে অপবাদ, অপপ্রচার করে মুসলমানদেরকে উত্তেজিত করে মুসলমানদেরকে ক্ষেপিয়ে তুলে তাদেরকে দিয়ে ধ্বংসাত্মক কর্মকাÐ পরিচালনা করতে।” এর মধ্য দিয়ে তারা প্রমাণ করতে চায় যে, “মুসলমানরা উগ্র, মুসলমানরা সন্ত্রাসী। তারা চায় মুসলমানদেরকে সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে ভয়ানক অস্ত্র নিয়ে হামলার বৈধতা আদায় করতে। সুতরাং তাদের পাতা এ ফাঁদে পা দেওয়া যাবে না।” তিনি বলেন, আমরা হেযবুত তওহীদ ২২ বছর যাবৎ বলে আসছি যে, মুসলমানদের ভূখÐগুলোকে পরিকল্পিতভাবে একটার পর একটা ধ্বংস করে ফেলা হচ্ছে। আজকে যে দৃশ্য আমরা মিয়ানমারে দেখছি সেই একই দৃশ্য আমরা সিরিয়া, ইরাক, আফগানিস্তান, ফিলিস্তিন, লিবিয়াসহ উত্তর আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে দেশে দেখে এসেছি। এই ধ্বংসযজ্ঞ কতদূর পৌঁছাতে পারে আমরা তা হয়ত কল্পনাও করতে পারি না।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, হেযবুত তওহীদের সদস্য আলমগীর হোসেন, আব্দুর রউফ আবেদ, মুনসুরসহ অত্র এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

পবা, রাজশাহী:
রাজশাহী জেলা হেযবুত তওহীদের উদ্যোগে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সোমবার পবা থানার পারিলার বামনশিখর গ্রামে এক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। পারিলা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আনারুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী জেলা হেযবুত তওহীদের সভাপতি আবু রায়হান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ৭নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মো. নাজেম উদ্দিন, পুড়াপুকুর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক মো. হাসেম আলীসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি আবু রায়হান তার বক্তব্যে বলেন, সারা বিশ্বে আজ ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে সাধারণ ধর্মভিরু মানুষের মাঝে একদল স্বার্থন্বেষী মহল বিভ্রান্তি ছড়িয়ে মানুষের ধর্ম বিশ্বাসকে হাইজ্যাক করে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, সাম্প্রদায়িকতা, ধর্ম নিয়ে ব্যাবসা ও অপরাজনীতিসহ নানা প্রকার অপকর্মে লিপ্ত হচ্ছে। তারা নৈরাজ্যের সৃষ্টি করে তাদের স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছে। ফলে সারা বিশ্ব আজ হানাহানি, রক্তপাত ও ধংসযোজ্ঞের লিলাভূমিতে পরিণত হচ্ছে। তাদের কুদৃষ্টি এখন আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের উপরেও পরেছে। আপনারা পত্র পত্রিকা ও টিভি চ্যানেলে দেখেছেন সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আমাদের দেশে বেশকিছু জঙ্গি হামলা হয়েছে এবং তাদের প্রতিহত করতে আমাদের আইন-শৃংঙ্খলা বাহিনীর অনেক ভাইয়েরা নিজেদের প্রাণ উৎসর্গ করেছেন। বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য সরকারের পক্ষ থেকেও কঠোর নীতি গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু সমাজের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে এ সঙ্কট মোকাবেলায় এগিয়ে আসাতে হবে। আমরা হেযবুত তওহীদ সারা দেশে একযোগে এই পরিস্থিতির বিরুদ্ধে দেশের মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। মানবতার কল্যাণে নিঃস্বার্থভাবে কাজ করছি। আপনাদের প্রতি আহŸান, আমাদের এই কাজে সহযোগীতা করুন, আমাদের সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশ রক্ষায় অবদান রাখুন।
অনুষ্ঠানে আগত জনগণ সকলে এই সঙ্কট মোকাবিলায় হেযবুত তওহীদের উদ্যোগের সাথে ঐক্যমত পোষণ করেন।
আক্কেলপুর, জয়পুরহাট:
সন্ত্রাস জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ধর্মের প্রকৃত শিক্ষাকে তুলে ধরে জনসাধারণকে সচেতন করার লক্ষ্যে জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার পৌর সদরের পাহান পাড়ায় সোমবার সন্ধ্যায় বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী জনসাধারণের সাথে এক মত-বিনিময় সভা করেছে আক্কেলপুর উপজেলা হেযবুত তওহীদ। ‘জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ’ শীর্ষক ¯েøাগানে এ মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন, মো. আল মাসুদ রুবেল এবং সভাপতিত্ব করেন, হেযবুত তওহীদের আক্কেলপুর উপজেলা সভাপতি মো. মাসুদ রানা।
জয়পুরহাট জেলা হেযবুত তওহীদের সভাপতি মো. আবু রায়হান সভায় তার বক্তব্যে বলেন, ধর্ম এসেছে মানবতার কল্যাণে। ধর্মকে ব্যবহার করে সন্ত্রস সৃষ্টি করা, বৈষিয়িক স্বার্থ উদ্ধার করা, সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ প্রচার করাকে কোন ধর্মই অনুমোদন দেয় না। তবুও ধর্মের নামেই এখন আমাদের সমাজে চলছে এসব অধর্ম। এ অবস্থায় ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা সাধারণ মানুষের মাঝে তুলে ধরার কোন বিকল্প নেই। সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে নিঃস্বার্থভাবে ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা তুলে ধরার কাজটিই করে যাচ্ছে মানবতার কল্যাণে নিবেদিত অরাজনৈতিক আন্দলোন হেযবুত তওহীদ। আজ বাংলাদেশের মানুষ চরম সঙ্কটময় পরিস্থিতিতে বসবাস করছে। তার কারণ হলো বর্তমানে যে ধর্ম আমাদের সমাজে প্রতিষ্ঠিত আছে সেটা আল্লাহর রসুলের (সা.) আনীত প্রকৃত ধর্ম নয়। একটি অসাধু মহল সাধারণ মানুষের ধর্মীয় সেন্টিমেন্টকে ব্যবহার করে সমাজে প্রায়ই নানা রকম অপরাধমূলক কর্মকাÐ করে বেড়ায়। এসবের বিরুদ্ধে আমাদেরকে সব সময় সচেতন থাকতে হবে।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- আক্কেলপুর উপজেলা জাসদের সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন উজ্জল, হেযবুত তওহীদের আক্কেপুর উপজেলা প্রচার সম্পাদক মো. ফরিদ শেখসহ অত্র এলাকার বিভিন্ন ধর্মাবলম্বী গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

Leave A Reply