পঞ্চগড়ে সাংবাদিকদের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

0

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড়: পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে ৬ জন সাংবাদিকের ওপর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাৎ জামান চৌধুরী জজের অনুসারী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হামলা ও লাঞ্ছিতের ঘটনায় সোমবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে পঞ্চগড় শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। পঞ্চগড় প্রেসক্লাব এই মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি আয়োজন করে।
সকাল সাড়ে ১১টায় মানববন্ধন কর্মসূচি শুরু হয়। মানববন্ধনে জেলার সকল গণমাধ্যম কর্মীসহ দেবীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীবৃন্দ ছাড়াও সর্বস্তরের মানুষ অংশ নেন।
মানববন্ধনে পঞ্চগড় প্রেসক্লাবের সাংবাদিক এ রহমান মুকুল, সাধারণ সম্পাদক সফিকুল আলম, পঞ্চগড় জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আনিছ প্রধান, সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজালাল, সাংবাদিক শহীদুল ইসলাম শহীদ, মোশাররফ হোসেন, মো. লুৎফর রহমান, মো. নজরুল ইসলাম, রাশেদুজ্জামান বাবু প্রমুখ বক্তব্য দেন। মানববন্ধনে দেবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আসম নুরুজ্জামানের নেতৃত্বে কৃষকলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ একাত্মতা প্রকাশ করেন।
মানববন্ধন শেষে সাংবাদিকরা বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যান। সেখানে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক ও অতিরিক্ত ম্যাজিষ্ট্রেট (এডিএম) অতীন কুমার কুন্ডুর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগ সভানেত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।
দেবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাৎ জামান চৌধুরী জজের বিরুদ্ধে বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে প্রশাসনিক ও সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণসহ অভিযুক্ত যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দলীয় ও আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। অন্যথায় আরও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা দেয়ার হুশিয়ারী দেন তারা।
উল্লেখ্য, গত ২৭ নভেম্বর দেবীগঞ্জ পৌর কার্যালয়ে খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে পৌর প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরুজুল ইসলাম, পৌর কাউন্সিলর ও বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৬ জন সাংবাদিক উপজেলা চেয়ারম্যান হাসনাৎ জামান চৌধুরী অনুসারী যুবলীগ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী কতৃক হামলার শিকার হন। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ গণমাধ্যম কর্মীদের প্রায় দুই ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখে উপজেলা চেয়ারম্যানের লোকজন। এ সময় পৌর কাউন্সিলর আকসাদুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। পরে পুলিশ এসে অবরুদ্ধদের উদ্ধার করে।

Leave A Reply