প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলা ভুমি নবাবগঞ্জ জাতীয় উদ্যান

0

মোহাম্মদ হাসিম উদ্দিন প্রতিনিধি(নবাবগঞ্জ)দিনাজপুরঃ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলা ভুমি নবাবগঞ্জ জাতীয় উদ্যান। দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা সদরের উত্তর-পশ্চিমে জগন্নাথপুর, হরিল্যাখুর, বড় জালালপুর, আলোকধুতি, তর্পনঘাট, রসুলপুর ও খটখটিয়া কৃষ্টপুর মৌজা নিয়ে সুবিশাল শালবন সহ বেশ কিছু ঐতিহাসিক স্থান নিয়ে জাতীয় উদ্যানটির অবস্থান।
জাতীয় উদ্যানের মুল আকর্ষন পঞ্চবটীর শালবন। বন বিভাগ সুত্রে জানা গেছে পঞ্চবটীর শালবনের  আয়তন ৫১৭.৬১ হেক্টর বা ১২৭৮.৫০ একর। এ বনে রয়েছে শাল ও সেগুন গাছ, জাম, গামার, ইউক্যালিপটাস, আকাশমনি ঔষধি গাছ, বিভিন্ন শ্রেণীর অর্কিড ও ক্যাকটাসসহ নানা প্রজাতির গাছগাছড়া। ঘন ও বিশালাকার শালবনকে ঘিরে রয়েছে নানা জনশ্রুতি- শিবের কৈলাশ বাস, সীতার বনবাস এ বনেই হয়েছিল। এই বনেইর  বাল্মিকী মুনিরূপে খ্যাতি লাভ করেন ।
জাতীয় উদ্যানের শালবনের উত্তর পাশ ঘেষেই বিশাল আশুরার বিলের অবস্থান। এ বিলের আয়তন ২৫১.৭৮ হেক্টর। এই বিলের উৎপত্তি নিয়ে তৈরি হয়েছে বিচিত্র কাহিনী। কথিত আছে এই বিলের চারপাশ থেকে ৮০ টি দার বা নালা চর্তুদিকে ছড়িয়ে গেছে বলে এর নাম করণ হয়েছে আশুরার বিল। এ বিলের সাদা শাপলা ও লাল পদ্মফুল সমাহার উপভোগ করার মত। ইচ্ছে করলে আপনি নৌকায় ঘুরে বিশাল এই বিলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারবেন। এ বিলের পাড়ে প্রতি বছর দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে শীত মৌসুমে পিকনিক-এ ভ্রমন পিপাষুরা।
জাতীয় উদ্যানের অন্যতম দশর্ণীয় স্থান সীতার কোর্ট বা সীতার কোঠুরী বৌদ্ধ বিহার। এটি জাতীয় উদ্যানের শালবন ঘেষা দক্ষিন পার্শ্বে। এটি আগে বনের ভিতরে অবস্থিত ছিল। এ বিহার পূর্ব-পশ্চিমে লম্বা ২১৪ ফুট, উত্তর দক্ষিনে প্রস্থ ২১২ ফুট। শৌচাগার ব্যতিত ছোট বড় কক্ষের সংখ্যা ৪১টি।

সব মিলিয়ে নবাবগঞ্জ জাতীয় উদ্যান দর্শনে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও ঐতিহাসিক নিদর্শন দর্শনে আপনার মনে প্রসান্তি এনে দিবে।

Leave A Reply

Pinterest
Print