ময়মনসিংহে বীন ও গোয়ালা সম্প্রদায়কে রক্ষায় মানববন্ধন

0

img_2896মফিজ উদ্দিন, ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালী থানার অর্ন্তগত খাগডহর ইউনিয়নের জেল খানার চর মৌজার স্থায়ী “বীন ও গোয়ালা” সম্প্রদায়। ময়মনসিংহ বিভাগ হওয়ায় সম্পত্তি অধিগ্রহণের ফলে এই সম্প্রদায়ের ২০০ বছরের বংশ পরস্পরায় বসবাসকৃত জমিটুকু আর থাকছে না। ইতিপূর্বে ময়মনসিংহ জেলা হওয়ার সময় এই সম্প্রদায়ের অনেক জমি শহরের বিভিন্ন সরকারী ভাবে অধিগ্রহনের শিকার হয়। বীন ও গোয়ালা সম্প্রদায়েরা মানুষ হিসাবে বেঁচে থাকার মত আর কোন জমি নাই। বীন ও গোয়ালা সম্প্রদায়ের ভোগ দখলকৃত ভুমিতে প্রায় ৩০০/৪০০ বীন পরিবার বসবাস করে। অত্র জেলার অন্য কোথাও “বীন ও গোয়ালা” সম্প্রদায় নেই। এই ভূমিতেই বসবাস করেই তারা জীবিকা নির্বাহ করে থাকে।
আরও উল্লেখ্য যে, “বীন ও গোয়ালা” সম্প্রদায়ের ভোগকৃত ভূমিতেই একটি আন্তজার্তিক ইসকন মন্দির ও দূর্গা মন্দির, মসজিদ, বেসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় যাতে উক্ত সম্প্রদায়ের ছেলেমেয়েরা লেখাপড়া করতে পারে এবং সকল প্রতিষ্ঠানই “বীন ও গোয়ালা” পাড়া নামে পরিচিত।
দখলকৃত ভুমি হইতে উচ্ছেদ হইলে অন্য কোথাও তাহাদের মাথা গোজার ঠাই মিলবে না এবং অধিকাংশ পরিবার চিরতরে নিঃশেষ হওয়ার সম্ভাবনা বিদ্যমান।
সোমবার সকালে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মোড়ে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে “বীন ও গোয়ালা” সম্প্রদায়ের সনাতন ধর্মাবলম্বী হিন্দু সম্প্রদায়। উক্ত সম্প্রদায়কে রক্ষা করার জন্য হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ এর নেতৃবৃন্দ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ শেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারক লিপি প্রদান করেন ।
ময়মনসিংহ মহানগর পূজা উদযাপন কমিটির আহবায়ক প্রদীপ ভৌমিক, জেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সাধারন সম্পাদক ও সদস্য সচিব উত্তম চক্রবর্তী রকেট, সঞ্জয় ঘোষ, দুলাল ঘোষ, সবীর দত্র, বুলবুল গোয়ালাসহ আরও অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply