‘রতন সিং’য়ের চরিত্র বেশি জোরদার মনে হয়নি শাহরুখের

0
‘রতন সিং’য়ের চরিত্র বেশি জোরদার মনে হয়নি শাহরুখের

‘রতন সিং’য়ের চরিত্র বেশি জোরদার মনে হয়নি শাহরুখের

সঞ্জয় লীলা বানসালীর বিতর্কিত ছবি ‘পদ্মাবত’ সব বাধা আর বিপত্তি কাটিয়ে ১১৪ কোটি রুপি ব্যবসা করেছে। শুধু ভারতে নয়, বাইরেও দুর্দান্ত ইনিংস খেলছে দীপিকা পাড়ুকোন, রণবীর সিং ও শহিদ কাপুর অভিনীত ছবিটি। আজ এই ছবির এত জয়জয়কার। কিন্তু পরিচালক জানালেন, একজনকে ছাড়া নাকি ‘পদ্মাবত’ ছবি বানানো তাঁর পক্ষে কোনোভাবেই সম্ভব হতো না। কে তিনি?

সঞ্জয় লীলা বানসালী জানালেন, রণবীর সিং একজন শক্তিশালী অভিনেতা। তাঁর সঙ্গে টক্কর দেওয়ার মতো একজনের খোঁজ করছিলেন তিনি। তাঁর প্রথম পছন্দ ছিল শাহরুখ খান। কিন্তু এই বলিউড তারকা সরাসরি ‘না’ বলে দেন বানসালীকে। শাহরুখের মনে হয়েছিল, বানসালীর এই ছবিতে ‘রতন সিং’য়ের চরিত্র ততটা জোরদার নয়। এরপর শহীদ কাপুরকে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বানসালী। ‘আলাউদ্দিন খিলজি’র মতো দাপুটে খলনায়ককে পাল্লা দেওয়ার মতো নায়ক চাই তাঁর। বানসালী ভেবেছিলেন, রণবীরকে এ ক্ষেত্রে একমাত্র শহিদ কাপুরই টক্কর দিতে পারবেন।

এই চ্যালেঞ্জ নিতে এতটুকু পিছপা হননি শহিদ কাপুর। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমকে শহিদ কাপুর বলেন, ‘বানসালী বললেন, মেওয়ারের রাজা রতন সিংয়ের চরিত্রটা আমি না করলে তাঁর পক্ষে “পদ্মাবত” ছবিটি করা অসম্ভব হবে। আলাউদ্দিন খিলজির মতো ভিলেনের জন্য শক্তিশালী নায়কের সন্ধান করছিলেন তিনি। বানসালীর মনে হয়েছিল, চরিত্রটা আমি করতে পারব।’

শহিদ কাপুর আরও বলেন, ‘ছবির ট্রেলার মুক্তির পর দর্শকের কাছে আমার চরিত্র সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা ছিল না। কিন্তু মুক্তির পর প্রচুর দর্শকের ভালোবাসা পাচ্ছি, প্রশংসা পাচ্ছি। আমি খুবই আপ্লুত। যদিও ছবিতে আমার উপস্থিতি কম, তবুও আমার চরিত্রটি সবাই দারুণভাবে গ্রহণ করেছেন।’

বলিউডে নায়কের তথাকথিত প্রথা ভেঙে এবং ঝুঁকি নিয়ে একাধিক ভিন্ন ধারার ছবি উপহার দিয়েছেন শহিদ। জানালেন, ‘হায়দার’ আর ‘উড়তা পাঞ্জাব’ ছবি দুটিতে তিনি উগ্রবাদী চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এরপর ‘রতন সিং’য়ের মতো একজন ন্যায়পরায়ণ রাজার চরিত্রে কাজ করতে মোটেও ভয় পাননি। অভিনেতা হিসেবে এটা ছিল তাঁর চ্যালেঞ্জ।

শহিদ কাপুর বললেন, ‘আমি চাই, দর্শক আমাকে একজন সম্পূর্ণ অভিনেতা হিসেবে জানুক। এর জন্য নিজেকে ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে মেলে ধরা প্রয়োজন। আমি সেই চেষ্টা করছি। বানসালীর এই ছবিতে রতন সিং প্রকৃতই নায়ক। আর এই চরিত্রে অভিনয় করতে পেরে আমি সব সময় গর্ববোধ করব। ছবিটি প্রতিটি রাজপুতকে উৎসর্গ করতে চাই আমি। “পদ্মাবত” আমার অভিনীত অন্যতম প্রিয় ছবির একটি।’

Leave A Reply

Pinterest
Print