রাঙামাটিতে সড়ে দাড়ালেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিব

0
OLYMPUS DIGITAL CAMERA

উচিংছা রাখাইন, রাঙামাটি: রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচনে নতুন মেরুকরণ হচ্ছে। সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে আলোচিত রাঙামাটির মেয়র প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব নৌকা প্রতীক প্রার্থী আকবরকে সমর্থন দিয়ে পৌর নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়িয়েছেন।

হাবিবুর রহমান হাবিব পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও পৌরসভার সাবেক দু’বারের মেয়র। আওয়ামী লীগ থেকে যুবলীগের সভাপতি আকবর হোসেনকে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করার মনোনয়ন প্রদান করলে আলোচিত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব বিদ্রোহ ঘোষণা করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের ঘোষণা করেন। শেষ পর্যন্ত তিনি নির্বাচন অফিস থেকে জগ মার্কা প্রতীক পেয়ে শহরের আনাঁচে-কানাচে প্রচারণা চালাতে থাকে।

জেলা আওয়ামী লীগ থেকে বারবার বলার পরও তিনি নির্বাচন থেকে সড়ে যাননি। তার এ দৃঢ় প্রত্যয় দেখে দলের একাংশ নেতা-কর্মী বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিবের পক্ষে হয়ে কাজ শুরু করে। দলীয় প্রধানরা দলের নেতা-কর্মীদের বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিবের পক্ষে কাজ না করার জন্য নিষেধ প্রদান করে। কিন্তু দলের এ সকল নেতা-কর্মীরা দলের নীতি নির্ধারকদের কথা না শুনে বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিবের পক্ষে কাজ শুরু করায় জেলা যুবলীগের সাংগাঠনিক সম্পাদক শিমুল দে টিংকু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক সুরনজিৎ তালুকদার (পাপ্পু), সদস্য আব্দুস সালাম, রবিউল হোসেন এবং শহর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল জব্বারকে দল থেকে বহিষ্কার করে।

মঙ্গলবার বিকালে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ জরুরুী ভিত্তিতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সাংবাদিক এবং দলের নেতা-কর্মীদের সামনে বিদ্রোহী প্রার্থী হাবিব বলেন, আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রেখে নৌকা প্রতীককে সমর্থন দিয়ে পৌর নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়াচ্ছি। এসময় তিনি বলেন, আমি দীর্ঘদিন দলের সাথে ছিলাম, আছি, থাকবো। অনেকে বলে বেড়ায় আমি নাকি এ অঞ্চল থেকে চলে যাবো। রাঙামাটি আমার প্রাণের শহর। আমি এখান থেকে কোথায় যাবো না।

তিনি আরো জানান, দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করা আকবর হোসেনের পক্ষে আমি কাজ করবো। এসময় সাংবাদিকরা বলেন, আপনি কারো ভয়ে নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়াচ্ছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি কারো ভয়ে নির্বাচন থেকে সড়ে যাচ্ছি না। দলেকে ভালবেসে, দলের প্রতি আস্থা রেখে, শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় প্রত্যয়ে নৌকা প্রতীককে সমর্থন দিলাম। সাংবাদিকরা এসময় বলেন, নির্বাচন প্রত্যাহারের এখন কোন সুযোগ নেই এমন প্রশ্নের জাবাবে তিনি বলেন, আমি জানি নির্বাচন প্রত্যাহারের কোন সুযোগ নেই কিন্তু আমার সমর্থন দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে।

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার বলেন, হাবিব দলকে ভালবেসে রাঙামাটি পৌরসভা নির্বাচন থেকে সড়ে যাওয়ায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত উৎফলিত। আর যাদের দল থেতে বহিষ্কার করা হয়েছে আজ থেকে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হলো। আমি হাবিবকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি দলের জন্য সঠিক সময়ে সিন্ধান্ত নেওয়ার।

সাংবাদিকরা এসময় আওয়ামী লীগের আরেক বিদ্রোহী প্রার্থী অমর কুমার দে’র প্রসঙ্গ তুললে তিনি বলেন, অমর কুমার দে দল থেকে মনোনয়ন চাইনি। তারপরও মেয়র প্রার্থী অমর কুমার দে’র প্রতি আহবান জানাচ্ছি, দলের স্বার্থে তিনি মেয়র নির্বাচনের পথ থেকে সড়ে দাড়ান। সাংবাদিক সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান, সহ-সভাপতি চিংকিউ রোয়াজা, সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য হাজী মুছা মাতব্বর, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দীন বাবুলসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগসহ দলের অন্যান্য নেতা-কর্মীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Pinterest
Print