শুকর চাষেও বৈদেশিক মুদ্রা আয়

0

 মিলন কবির ,যশোর:

অন্যন্য গৃহিত পালিত পশুর মত চাষ করা হয় শুকর ৷তবে শুকর মাঠে, বনে চরে খাই ৷পৃথিবতে সমস্ত পশু পাখি সহ অন্যন্য সৃষ্টি মানুষের প্রয়োজনে কিন্তু কোরআন ও হাদিসে এই শুকরের মাংস খাওয়া হারাম করা হয়েছে ৷যশোরের শার্শা উপজেলার রামপুর গ্রামে বানিজ্যিক ভাবে চলছে শুকর চাষ ৷এলাকার সাধারন মানুষ এটিকে আবার একটি পাড়ায় বিভক্ত করেছে ৷যেটিকে বলে কাউরা পা়ড়া ৷এ উপজেলায় জেলে পাড়া, কামার পাড়া, পাল পাড়া, ঋষি পা়ড়ার মত অবহেলিত আরও একটি পাড়ায় বিভক্ত রয়েছে ৷তবে এদের সাথে সমাজের সব শ্রেণী পেশার মানুষের তেমন উঠা বসা থাকে না ৷ বিশেষ করে মুসলিম জাতি তাদের থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করেন ৷কারণ ইসলামী শরিয়তে শুকরের মাংস ভক্ষন হারাম করা হয়েছে ৷এ জন্য আমাদের মুসলিম ধর্মের লোকজন তাদেরকে অনেকটা এড়়িয়ে চলেন ৷তবে সামাজিক সকল সুবিধা অবশ্য তারা পেয়ে থাকে ৷যেমন: নাগরিক সুবিধা, ভোট অধিকার, চিকিৎসা সুবিধাসহ সকল সুবিধা তারা পেয়ে থাকেন ৷এ বিষয়ে জানতে চাইলে রামপুরের মহন কাউরা বলেন, উপজেলা প্রশাসন থেকে শুরু করে এলাকার চেয়ারম্যানসহ সকলে আমাদের সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকেন ৷শুকরের প্রিয় খাবার হচ্ছে কচুঁর মূথা, ঘাসের মূথাসহ অন্যন্য পাতা লতা খেয়ে এরা জীবন ধারন করে ৷মাসিক বেতন ভুক্ত রাখাল দিয়ে এই শুকর দেখা শোনা ও রক্ষনা বেক্ষন করা হয় ৷গৌতম নামের এক রাখালের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, দাদা আমি ২৫ হাজার টাকা বেতন পাই ৷আমার সাথে আর একজন আছে তার বেতন ৩০ হাজার টাকা ৷তবে আপনাদের সমাজের সাথে আমাদের সমাজের কোন মিল নেই ৷কারন আপনাদের ইসলাম ধর্মে এই পশুটা হারাম ৷এ জন্য আমাদের অনেক কথা শুনতে হয় সমাজে ৷শুকরের দাম জানতে চাইলে বলেন, ১০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত দাম রয়েছে ৷তবে সমাজে আমাদের মূল্যায়ন অনেক কম দাদা ৷বানিজ্যিক ভাবে এটি লাভজনক ব্যবসা ৷ অনেক গবেষনায় দেখা গেছে শুকরের চর্বি দিয়ে বিভিন্ন ঔষধ, সাবান, কোমল পানিসহ অনেক কাজে ব্যবহার করা হয় ৷শুকরের বাচ্চা জন্ম সম্পর্কে জানতে চাইলে, রবিন বলেন, এরা বছরে ১ থেকে ২ বার বাচ্চা প্রসব করে ৷গড়ে ৫ থেকে ৮ টি করে বাচ্চা দেয় ৷তবে অন্যন্য পশুর মত এদের তেমন চিকিৎসার প্রয়োজন হয় না ৷এরা সব আবহাওয়াতে খাপ খাওয়াতে পারে ৷অনুসন্ধান করে দেখা গেছে, গরু, ছাগল , হাঁস, মুরগী পালনের মত এটি ও লাভজনক তবে এটি ইসলাম বিরোধী পশু ৷এ পশু চাষ ও বানিজ্যিক ভাবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ভূমিকা রাখে ৷এ গুলো আবার বিদেশে রপ্তানী করে প্রচুর বৈদেশিক মূর্দ্রা অর্জন করতে সক্ষম হয় ৷

জে-থার্টিন,খুলনা

Leave A Reply

Pinterest
Print