শিক্ষিকারর শ্লীলতাহানি: প্রধান শিক্ষককে বিদ্যালয়ে না যাওয়ার নির্দেশ

0

KABIR BAGERHAT  17-5-16মশিউর রহমান, মোরেলগঞ্জ: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সহকর্মীর শ্লীলতাহানীকারী সেই প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেনকে বিদ্যালয়ে না যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আনিসুর রহমান জানান, বিভাগীয় ব্যবস্থা গৃহীত না হওয়া পর্যন্ত ওই প্রধান শিক্ষক আর বিদ্যালয় মুখী হবেন না। তিনি বলেন, বিভাগীয় ব্যবস্থার নির্দেশ না আসা পর্যন্ত আজ মঙ্গলবার থেকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে রাখা হয়েছে তাকে।
গত রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ১১৪নং এসপি বারইখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন তার সহকর্মী শিক্ষিকাকে কুপ্রস্তাব দেন। এতে রাজি না হওয়ায় এক পর্যায়ে টানা হেচড়া করে শ্লীলতা হানি ঘটায়। এ ঘটনা জানাজানি হয়ে গেলে গতকাল সোমবার স্থানীয় জনগন ও অভিভাবকরা প্রধান শিক্ষককে গণপিটুনি দিয়ে একটি কক্ষে আটক করে রাখে। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।
মোরেলগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আনিসুর রহমান জানান, রোববার (১৫ মে) রাত ৮টার দিকে ওই শিক্ষিকা প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অসদাচরণ ও শ্লীলতাহানির মৌখিক অভিযোগ করেন। পরে তিনি ওই শিক্ষিকার থেকে লিখিত অভিযোগ নেন। সোমবার সকালে ব্যবস্থা গ্রহণে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানান।
মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদুল আলম জানান, স্থানীয়রা প্রধান শিক্ষককে অবরুদ্ধ করলে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে জানিয়ে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা তাকে থানা থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে গেছেন বলে জানান ওসি।

Leave A Reply

Pinterest
Print