সহজ উপায়ে সারিয়ে তুলুন ঘাড়ের অসহ্য ব্যথা

0

Neck-Pain-Treatment-in-Indiaরকমারি ডেস্ক:
হঠাৎ করেই ঘাড় ব্যথা, এটি খুব সাধারণ ও পুরাতন একটি সমস্যা কিন্তু খুবই কষ্টদায়ক। ঘাড় ব্যথার কারণে মাথাব্যথা হয়, ঘাড়ের আসে পাশে ফুলে যায়, জ্বালাপোড়া হয়, খাওয়ার সময় গিলতে সমস্যা হয়, ঘাড় ফুলে যায়। তবে ঘাড় ব্যথা হওয়ার কিছু কারণ রয়েছে যেমন- কোন রকম বিরতি ছাড়া ডেস্কে বসে দীর্ঘক্ষণ কাজ করা, ঘুমের সময় ঠিক ভাবে না ঘুমানো, এক্সারসাইজ করার সময় ঘাড় বেশি নাড়ানো ইত্যাদি। আরও কিছু কারণ হল- দেহে পুষ্টির ঘাটতি, ঘাড়ে আঘাত পাওয়া, নার্ভ কম্প্রেশন, সার্ভিকাল স্পনডায়লোসিস, ফিব্রমায়ালগিয়া ইত্যাদি। ঘাড় ব্যথার সমস্যা খুব বেশি হলে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে চিকিৎসা করাতে হবে। এছাড়াও ঘরোয়া উপায়েও ঘাড় ব্যথার সমস্যা সমাধান করতে পারবেন।

বরফের প্যাক
ঘাড় ব্যথা কমানোর জন্য বরফ খুব সাধারণ একটি সমাধান। বরফের ঠাণ্ডা টেম্পারেচার ঘাড় ব্যথার জ্বালাপোড়া রোধ করে এবং ব্যথা কমিয়ে দেয়। তাই ঘাড় ব্যথায় ব্যবহার করুন বরফ।
১। একটি প্লাস্টিক ব্যাগে বরফগুঁড়ো নিয়ে নিন।
২। বরফের প্লাস্টিক ব্যাগটি একটি পাতলা তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে নিন।
৩। তারপত আইস ব্যাগটি আপনার ঘাড়ে যেখানে ব্যথা করছে সেখানে ১৫ মিনিট রেখে দিন তবে মাঝে মাঝে নাড়াচাড়া করুন।
৪। এই উপায়টি দিনে ৩/৪ বার করুন ব্যথা কমে যাবে।

হলুদ
ব্যথা সারিয়ে তোলার জন্য হলুদের জুড়ি নেই। হলুদের ফাইটোকেমিক্যাল, অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান ঘাড় ব্যথা সারিয়ে তুলতে সহায়তা করে। এছাড়াও হলুদ দেহের রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে যা দ্রুত ব্যথা কমিয়ে দেয়।
১। এক গ্লাস দুধে ১ চামচ হলুদের গুঁড়ো মিশিয়ে নিন
২। ৫ মিনিট হলুদ মিশানো দুধ ফুটিয়ে নিন
৩। ফুটানো হলে এর সাথে এক চামচ মধু মিশিয়ে নিন এবং ঠাণ্ডা হতে দিন
৪। দিনে দুবার এই হলুদ মেশানো দুধ পান করুন ব্যথা পুরোপুরি না কমে যাওয়া পর্যন্ত।

Leave A Reply

Pinterest
Print