সুন্দরবনের শরনখোলায় র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে ৩ বনদস্যু সদস্য নিহত

0

downloadশরণখোলা , বাগেরহাট: সুন্দরবনের শরনখোলা রেঞ্জের চান্দেশ্বর ফরেষ্ট ক্যাম্পের নিকট কাতলার খাল এলাকায় র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন (র‌্যাব-৮) এর সাথে বনদস্যুদের বন্দুক যুদ্ধে ৩ বনদস্যু সদস্য নিহত হয়েছে। নিহতরা হলো বনদস্যু সাগর-সৈকত বাহিনীর সদস্য সাদ্দাম (৩০), সোহেল (২৫) ও অজ্ঞাত এক বনদস্যু। স্থানীয় জেলেরা নিহত ২জনের নাম সনাক্ত করেছে বলে র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবির দাবী করেছেন। এ সময়ে ঘটনাস্থল থেকে ১২ টি আগ্নেয়াস্ত্র, চাঁদা আদায়ের রশিদ ও অর্ধশতাধিক গোলাবারুদ সহ তাদের ব্যাবহ্রত মোবাইল, ঘড়ি ও ছোলার উদ্ধার করেছে। বৃহষ্পতিবার সকালে এই ঘটনা ঘটে। নিহতদের বাড়ী বরগুনা জেলার পাথরঘাটা এলাকায়। র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর আদনান কবির জানান, সুন্দরবনের পাথরঘাটা-শরনখোলা এলাকায় সাগর ও সৈকত বাহিনী নামের একটি বনদস্যু গ্রুপ দীর্ঘদিন জেলেদের অপহরণ, মাছলুট, চাঁদা আদায় ও মুক্তিপনের টাকা আদায় করত। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-৮ এর গোয়েন্দা টীম ওই এলাকায় গোপনে গোয়েন্দা নেটওয়ার্ক বিস্তার করে। বুধবার রাতে র‌্যাবের গোয়েন্দা টীমের মারফত জানতে পারে বৃহষ্পতিবার সকালে সুন্দরবনের শরনখোলা রেঞ্জের চান্দেশ্বর এলাকায় বনদস্যু সাগর-সৈকত বাহিনীর সদস্যরা জেলে অপহরণের প্রস্তুুতি গ্রহন করেছে। এমন খবরের ভিত্তির বৃহষ্পতিবার ভোর থেকে ওই এলাকায় র‌্যাব তৎপরতা বৃদ্ধি করে। এক পর্যায়ে চান্দেশ্বর ফরেষ্ট ক্যাম্পের পাশের কাতলার খাল এলাকা থেকে র‌্যাবের টহল দলের উপর বনদস্যুরা পরপর দুই রাউন্ড গুলি ছোড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি বর্ষন শুরু করে। প্রায় আধাঘন্টা গুলি বিনিময়ের পর বনের ভিতর র‌্যাব ও পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৩ বনদস্যুর গুলিবিদ্ধ লাশ, আগ্নেয়াস্ত্র ও ছড়ানো ছিটানো অর্ধশতাধিক গোলাবারুদ উদ্ধার করে। নিহত বনদস্যুদের লাশ ও আগ্নেয়াস্ত্র শরনখোলা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

Leave A Reply

Pinterest
Print