সেনাপ্রধানের সম্মানহানি করার কোনো উদ্দেশ্য ছিলো না – ড. জাফরউল্লাহ

0

ড. জাফরউল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজের সম্মানহানি করার কোনো চিন্তা বা উদ্দেশ্য আমার ছিলো না। অসাবধানতাবশত কোনো মনোকষ্ট দিয়ে থাকলে আমি আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।

আজ শনিবার গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। ড. জাফরউল্লাহ বলেন, দেশে যে রাজনৈতিক সংকট চলছে তার বিপরীতে সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে শান্তি ও ন্যায়ভিত্তিক রাষ্ট্র কায়েমে একজন সচেতন নাগরিক হিসেবে আমি স্বভাবতই চিন্তিত ও উদ্বিগ্ন।

তিনি আরো বলেন, অঙ্গপ্রতঙ্গ প্রতিস্থাপন আইনের সংকীর্ণতার কারণে আমি বাংলাদেশে কিডনি প্রতিস্থাপন করতে পারছি না। যে কারণে প্রতি সপ্তাহে তিনদিন আমাকে হোমো ডায়ালেসিস করতে হয়। এ কারণে শারীরিক দুর্বলতা বাড়ে এবং মানসিকস্থিতি কিছুটা কমে।

তিনি বলেন, গত ৯ অক্টোবর সময় টেলিভিশনে এক টকশোতে জেনারেল আজিজ আহমেদ সম্পর্কে অসাবধানতাবশত একটি ভুল তথ্য দিয়েছিলাম। প্রকৃতপক্ষে জেনারেল আজিজ একজন আর্টিলারি সেনা কর্মকর্তা। তিনি সেনানিবাসে জিওসি বা কমান্ডার ছিলেন না। তার বিরুদ্ধে কোনো কোর্ট মার্শাল হয়নি। একবার কোর্ট অব ইনকোয়ারি হয়েছিল।

তিনি বলেন, জেনারেল আজিজের সম্মানহানি করার কোনো উদ্দেশ্য আমার ছিল না। আমি সেনাবাহিনীর গৌরবে গর্বিত। মুক্তিযুদ্ধের সময় তাদের সুখ-দুঃখের ভাগিদার ছিলাম। যুদ্ধ শেষে প্রথম কুমিল্লায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল ও পরে আমি ও ড. আজিজুর রহমান ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল চালু করি।

Leave A Reply

Pinterest
Print