২৪ জুলাইয়ের মধ্যে জয়পুরহাট ধ্বংস করার হুমকি

0

জয়পুরহাট ধ্বংস করার হুমকি

জয়পুরহাট প্রতিনিধি: ২০ থেকে ২৪ জুলাইয়ের মধ্যে জয়পুরহাটকে ধ্বংস করার হুমকি দিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। ১৪ জুলাই ডাকযোগে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক বরাবর এ চিঠি পাঠানো হলেও সোমবার রাতে পুলিশ বিষয়টি জানিয়েছে।
জয়পুরহাট সদর থানার অফিসার ইনচার্জ ফরিদ হোসেন সোমবার রাতে জানান, জেএমবির পরিচয় দিয়ে ডাকযোগে পাঠানো চিঠিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারককে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। ওই চিঠিতে ২০ থেকে ২৪ জুলাইয়ের মধ্যে জয়পুরহাট বিজিবি ব্যাটালিয়ন দপ্তর, র‌্যাব ক্যাম্প, থানা, আদালত ভবন, পুলিশ লাইন, সোনালী ও অগ্রণী ব্যাংক, ডিবি অফিস এবং মন্দির উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া পুরোহিত ও সেবায়েতসহ জেলার সব ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাকে হত্যা করা হবে বলেও ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
হাতে লেখা ওই চিঠিতে আরো বলা হয়েছে, ‘আমাদের ৩০-৪০ জন সদস্য জেলখানায় আটক আছে। দয়া করিয়া তাদের জামিন দিয়া অতি শীঘ্রই অন্যত্র চলিয়া জান। আমাদের মেজাজ খারাপ আছে। ৬ জন সদস্য ঢাকার গুলশানে মারা গেছে, তার প্রতিশোধ বিচারক মারিয়া নিব। যদি বাঁচার ইচ্ছা হয় অন্যত্র চলে জান। জয়পুরহাট ধ্বংস করতে যা ইচ্ছা তাই করব। মহিলা বিচারকগুলোকে জবাই করা হবে। আমরা ছাড়ব না, আত্মঘাতী বোমা মারিয়া প্রতিশোধ নিব।’
এ ব্যাপারে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আবদুর রহিম জয়পুরহাট সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন, যার নম্বর ৬৪৫।
জয়পুরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) অশোক কুমার পাল জানান, জেএমবির পরিচয়ে কে বা কারা চিঠি দিয়ে এ হুমকি দিয়েছে, সে ব্যাপারে সতর্কতার সঙ্গে পুলিশি তদন্তের পাশাপাশি জেলায় নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

Leave A Reply

Pinterest
Print