আইএসকে জবাব দিতে ‘বিশ্ব সম্প্রদায়ের ব্যর্থতা লজ্জাজনক’

0
60

Amnesty_740049332আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বেসামরিক লোকদের ইসলামিক স্টেটসহ (আইএস) জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর হাত থেকে বাঁচাতে ‘বিশ্ব সম্প্রদায়ের ব্যর্থতা লজ্জাজনক’ বলে উল্লেখ করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। একইসঙ্গে ২০১৪ সালকে ‘বিপর্যয়ের বছর’ বলেও অভিহিত করেছে তারা। বুধবার (২৫ ফেব্র“য়ারি) প্রকাশিত সংস্থাটির বার্ষিক প্রতিবেদনে এসব অভিযোগ তোলা হয়। দীর্ঘ ৪১৫ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনটিতে ১৬০টি দেশের সন্ত্রাসী-জঙ্গি সম্প্রদায়ের নৃশংসতা, নির্যাতন ও ভয়াবহতার কথা উল্লেখ করা হয়। প্রতিবেদনে সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর সরকারকে অভিযুক্ত করে বলা হয়, তারা বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষার ভান করে ক্ষমতায় টিকে আছে। অ্যামনেস্টির প্রতিবেদনে আন্তর্জাতিক অস্ত্র বাণিজ্য নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত চুক্তিটি মেনে চলতে সব রাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলা হয়, আগামী বছর থেকে কার্যকর হতে যাওয়া এ চুক্তি বাস্তবায়ন হলে সিরিয়া ও ইরাকসহ জঙ্গি অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে অবাধ অস্ত্র চালান বন্ধ হতে সহায়তা করবে। প্রতিবেদনের ব্যাপারে অ্যামনেস্টির গণমাধ্যম বিভাগের পরিচালক সুসানা ফ্লাড সংবাদমাধ্যমকে বলেন, অবাধে অস্ত্র চালানের ফলে যে জঙ্গি গোষ্ঠীগুলো গজিয়ে ওঠে, তাদের হাতে বছরে পাঁচ লাখেরও বেশি লোক মারা যায়, আহত হয় আরও লাখো লোক। ধর্ষিত ও নির্যাতিত হয় অসংখ্য নারী। ঘর ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয় কোটি মানুষ। অ্যামনেস্টির মহাসচিব সলিল শেঠি বলেন, আইএসসহ সশস্ত্র জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর সংঘাত ও নির্যাতনের বিরুদ্ধে বৈশ্বিক জবাব লজ্জাজনক… জনগণ বর্বর সহিংসতায় চরমভাবে আক্রান্ত ও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। অ্যামনেস্টি মহাসচিবের মতে, বিশ্বের জনগণ তাদের রক্ষার জন্য যাদের দায়িত্ব দিয়েছে সে নেতাদের ব্যর্থতা অগ্রহণযোগ্য। জাতিসংঘ এ ব্যাপারে কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারেনি। এখনই আইএসসহ জঙ্গি গোষ্ঠীগুলো দমনে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে না পারলে চলতি বছর আরও বড় বিপর্যয়ে বিশ্বকে পড়তে হতে পারে বলে শঙ্কার কথা জানান অ্যামনেস্টি মহাসচিব।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here