খুব সহজে পেটের মেদ থেকে মুক্তি পেতে……

0
112

gwa053170রকমারি ডেস্ক:
পেটের মেদ নিয়ে অনেক বেশি চিন্তিত? চিন্তা হওয়ারই বিষয় এই পেটের মেদ। মেদ জমা স্বাস্থ্যের জন্য যেমন খারাপ তেমনই দেখার জন্যও বেশ খারাপ। বিশেষ করে পেটে মেদ জমলে অনেক বেশিই খারাপ লাগে দেখতে। আপনি শুধুমাত্র ডায়েট করে এই মেদ দূর করার চিন্তা করলে ভুল করবেন। কারণ পেটে জমা এই মেদ খুব সহজে পিছু ছাড়ার মতো নয়। ভাবছেন কী উপায়? তাহলে জেনে রাখুন খুব সহজ ছোট্ট ৭ টি টিপস যা পেটের মেদ কমাতে সহায়তা করবে।

১) সকালে ঘুম থেকে উঠে দুটি কাজ করতে পারেন, প্রথমতো, ১ গ্লাস কুসুম গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন। অথবা, ৩ কোয়া রসুন চিবিয়ে খেয়ে ১ গ্লাস কুসুম গরম পানি পান করে নিন লেবু দিয়ে। এতে করে আপনার হজম ক্ষমতা উন্নত হবে যা পেটে মেদ জমতে বাঁধা দেবে।

২) সাদা ভাত থেকে কষ্ট করে দূরেই থাকুন। ভাতের চাহিদা মেটান লাল চালের ভাত বা লাল আটার রুটি কিংবা ওটস ধরনের অন্যান্য কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার দিয়ে। এতেও ভালো ফল পাবেন।

৩) চিনি থেকে ১০০ হাত দূরে থাকুন। শুধু চিনি নয় চিনি জাতীয় সকল কিছু থেকে, বিশেষ করে অতিরিক্ত চিনি সমৃদ্ধ সোডা, খাবার ইত্যাদি থেকে। এমনকি ডায়েট চিনিরও ধারে কাছে যাবেন না।

৪) অতিরিক্তি তেলে ভাজা বা ফ্যাট সমৃদ্ধ খাবার সপ্তাহে মাত্র ১ দিন খাওয়ার অভ্যাস করুন। এছাড়াও কার্বোহাইড্রেট খাবার না খেয়ে প্রোটিনের দিকে বেশি নজর দিন। এতে অনেকটা সময় ক্ষুধা কম লাগবে এবং আপনি কম খাবেন। পেটে মেদ জমার হাত থেকেও মুক্তি পাবেন।

৫) প্রচুর পরিমাণে পানি পান করার অভ্যাস গড়ে তুলুন। পানি দেহের সকল বর্জ্য পদার্থ দূর করতে সহায়তা করে এবং হজমে সাহায্য করে। এতে করে পেটে মেদ জমার পাশাপাশি পানি পানের অভ্যাস স্বাস্থ্যও ভালো রাখে।

৬) যতোটা সম্ভব বেশি ফলমূল এবং শাকসবজি রাখার চেষ্টা করুন খাদ্যতালিকায়। এতে করে আপনি সুস্থভাবে পেটের মেদ কমাতে পারবেন যার কোনো খারাপ প্রভাব আপনার দেহে পড়বে না।

৭) ঝাল খাবার ওজন কমায় এবং কিছু মসলা যেমন দারুচিনি, গোল মরিচ, আদা ইত্যাদি পেটের মেদ কমাতে বেশ সহায়তা করে। তাই খাবারে বুদ্ধি করে এই জাতীয় মসলা ব্যবহার করুন।
খাবারও সুস্বাদু হবে এবং সেই সাথে মেদও দূর হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here