হিলিতে হালি প্রতি ডিমের দাম বেড়েছে ৮ থেকে ১০ টাকা

0
49

হাকিমপুর প্রeggতিনিধি: বাংলাহিলি বাজারে ফার্মের ব্রয়লার মুরগীসহ সব ধরনের ডিমের দাম বেড়েছে। দুসপ্তাহের ব্যাবধানে প্রতি হালিতে ডিমের দাম বেড়েছে ৮ টাকা থেকে ১০টাকা। এদিকে বাজার থেকে একপ্রকার উধাও হয়ে গেছে দেশীয় জাতের মুরগীর ডিম।

শুক্রবার সরেজমিন বাংলাহিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ফার্মের ব্রয়লার মুরগীর ডিম প্রতি হালি বিক্রি হচ্ছে ৩৬ টাকা থেকে ৩৮ টাকা দরে আবার কোথাও কোথাও ৪০ টাকা হালি দরেও বিক্রি হচ্ছে। আর দেশী হাসের ডিম প্রতি হালি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা দরে। অথচ দুসপ্তাহ আগে বাজারে ফার্মের মুরগীর ডিম বিক্রি হয়েছে ২৮ টাকা থেকে ৩০ টাকা হালি দরে। আর বাজারে দেশী হাসের ডিম বিক্রি হয়েছে ৩৬ টাকা থেকে ৩৮ টাকা হালি দরে। এদিকে বাজারে বরাবারের মতোই দেশী মুরগীর ডিম তেমন কোন দোকানে পাওয়া যাচ্ছেনা। দুএক দোকানে দেশী মুরগীর ডিম পাওয়া গেলেও তবে তা প্রতি হালি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা হালি দরে।

বাজারে ডিম কিনতে আসা মিনহাজুুল ইসলাম জানান, আমাদের মতো স্বল্প আয়ের মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষজনের পুষ্টিকর খাবার গুলোর মধ্যে একমাত্র ডিমের দামটাই সাধারনের হাতের লাগালে ছিলো। কিন্তু এভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে ডিমের দাম বাড়তে থাকলে আমরা আর কি খাবো। এছাড়াও প্রতি মাসের আয়ের উপর হিসেব করে পুরো মাসের সংসার খরচ চালাতে হয়। এভাবে দাম বাড়তে থাকলে সংসারের ব্যায়ভার মেটানো অসম্ভব হয়ে পড়বে। এবিষয়ে সরকারের বাজার মনিটরিং ব্যাবস্থা আরো জোরদার করা প্রয়োজন বলে তিনি জানান।

বাংলাহিলি বাজারের খুচরা ডিম বিক্রেতা জাহাঙ্গির আলম জানান, দু সপ্তাহ আগে প্রতি হালি ফার্মের ব্রয়লার মুরগীর ডিম আমাদের কিনতে পড়তো যেখানে ২৭ টাকা হালি দরে আর তা খুচরাতে বিক্রি হতো ২৮ টাকা হালি দরে। বর্তমানে পাইকারীতে প্রতি হালি ফার্মের মুরগীর ডিম আমাদের কিনতেই পড়ছে ৩৩ টাকা থেকে ৩৪ টাকা । আর তা বিক্রি করা হচ্ছে ৩৫ টাকা থেকে ৩৬ টাকা হালি দরে।

বাংলাহিলি বাজারের পাইকারী ডিম বিক্রেতা সাদ্দাম ডিম ভান্ডারের সত্বাধিকারী মো.সাদ্দাম হোসেন জানান, সম্প্রতি এক ধরনের রোগে স্থানীয় খামাগুলোর ডিম উৎপাদনকারী মুরগিগুলো মারা যাওয়ায় বাজারে ডিমের সরবরাহ অনেকাংশে কমে গেছে। এছাড়াও বর্তমানে বাংলাহিলির বিভিন্ন মুরগীর খামারের উৎপাদিত ডিমগুলো রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে চলে যাচ্ছে এর কারনে বাজারে ডিমের সরবরাহ কমেছে। এদিকে ক্রেতা সাধারনের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় বাজারে ডিমের দামও বেড়ে গেছে। আগামী এক মাস বাজারে ডিমের দাম এমনই থাকতে পাড়ে। তার পরে বাজারে ডিমের সরবরাহ বেড়ে গেলে সেক্ষেত্রে ডিমের দাম আবারও কিছুটা কমতে পারে বলে তিনি জানিয়েছেন।

বাংলাদেশেরপত্র/এডি/আর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here