”জঙ্গি ও অপরাধীদের গ্রেফতারে পুলিশকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে”

DSC_5505চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরস্থ জেলা পুলিশ লাইন্সে পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যদের বিশেষ কল্যাণ সভায় বক্তব্য রাখছেন নবাগত পুলিশ সুপার (এসপি) নুরে আলম মিনা।

চট্টগ্রাম অফিস: চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের নবাগত পুলিশ সুপার (এসপি) নুরে আলম মিনা বলেছেন, বাংলাদেশের মধ্যে চট্টগ্রাম একটি গুরুত্বপূর্ণ ও বড় জেলা। আইন-শৃঙ্খলা স্বাভাবিকসহ এ জেলার অধিবাসীদের শান্তিতে রাখতে হলে জঙ্গি, সন্ত্রাসী, অস্ত্রধারী ও বিভিন্ন অপরাধীদের গ্রেফতারে জনগণকে সাথে নিয়ে পুলিশ বাহিনীকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। এলাকার অপরাধ দমন ও মাদক ব্যবসা রোধে পুলিশের একার পক্ষে সম্ভব নয়। তাই অপরাধীদের চিহ্নিত করতে হলে কমিউনিটি পুলিশিংয়ের ও কোন বিকল্প নেই। এখন থেকে এলাকার জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দদের নিয়ে প্রত্যেক থানায় নিয়মিত কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশ করা হবে। সমাবেশে আইন-শৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখার বিষয়ে উপস্থিত সভ্যগণের কাছ থেকে নির্দেশনামূলক বক্তব্য নেয়া হবে।
আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় নগরীর হালিশহরস্থ জেলা পুলিশ লাইন্সেন বিশেষ কল্যাণ সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, জঙ্গিদের প্রধান শত্রু পুলিশ। যে কোন সময় জঙ্গিরা পুলিশ বাহিনীর উপর হামলা করতে পারে এই বিষয়টি বিবেচনায় এনে পুলিশ বাহিনীকে সবসময় সতর্ক থাকতে হবে। দুর্ব্যবহার নয় জনগণকে ভালোবাসা দিয়ে কাজ আদায় করে নিতে হবে। পুলিশ সুপার থেকে অতিরিক্ত ডিআইজি পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত চট্টগ্রাম জেলার সাবেক সফল পুলিশ সুপার একেএম হাফিজ আক্তার বিপিএম-এর সুনাম রক্ষায় জেলা পুলিশের বিভিন্নস্তরের কর্মরত কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যদের এক সাথে কাজ করতে হবে। পুলিশের কল্যাণে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার উপর অভিমত ব্যক্ত করেন তিনি।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) মো. হাবিবুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত বিশেষ কল্যাণ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মসিউদ্দোলা রেজা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমরান হোসাইন ভূঁইয়া ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর আলম। সভায় সার্কেল এএসপি, বিভিন্ন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি), পুলিশ পরিদর্শক, উপ-পরিদর্শক ও পুলিশ সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here