টানা বর্ষনে বেনাপোল নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, লক্ষ-লক্ষ টাকার ক্ষতি

benapole banna picture copy

কামাল হোসেন, বেনাপোল: টানা বর্ষনে বেনাপোল নিম্নাঞ্চল প্লাবিত। অপরিকল্পিত ভেড়ি নির্মান ও পাটা বাধের ফলে আমন ধান ও সবজি খেত সহ ভেড়ির মাছ ভেসে কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া ভারতে অতি বৃষ্টির কারনে নিম্নাঞ্চলের পানি বাংলাদেশের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করে বন্যায় রুপ নিয়েছে। জনজীবন বিপর্যস্থ হয়ে পড়েছে এসকল এলাকায়। বাংলাদেশের কলারোয়া উপজেলা হিজলদি সীমান্তের চান্দুড়িয়ার সুলতান পুর হয়ে কায়বা সীমান্তে গোয়াল পাড়া হয়ে ইছামছিতে নিপতিত হয়ে সাতক্ষীরা দিয়ে সাগরে পড়ছে। পুটখালীর বারোপোতা বাজার খাল দিয়ে বলির বিল ও চাত্রেরবিল অতি বর্ষনের পানিতে নিমজ্জিত হয়ে মাখলার বিলে পড়ছে।বাহাদুরপুর ও সর্বাংহুদার বিপরিতে দামুদর নদীর পানি উপচে পড়ে সুটিয়া সীমান্ত হয়ে কুদলার খাল হয়ে সরর্বাংহুদার ব্রীজ দিয়ে প্রবেশ করে ধর্মদহ নামক স্থান দিয়ে বাহাদুরপুর বাওড়ে প্রবেশ করে সোনামুখি বিলের ফসলি জমি নিমজ্জিত হচ্ছে।আমড়াখালী খাল দিয়ে কন্যাদহ বাওড়ের উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়ে মাখলার বিলের আমন ধান নিমজ্জিত হচ্ছে।
লক্ষনপুর ইউপি চেয়ারম্যান সালাউদ্দিন শান্তি জানান, ভারতের মুস্তাবপুর হয়ে বাংলাদেশের নারিকেল বাড়িয়া ও সালকোনা হয়ে বেতনা নদীতে পড়ছে।ডিহি ইউপি চেয়ারম্যান হোসেন আলী জানান, ডিহি ইউনিয়নের বিপরীতে ভারতের বয়রা, বাজিতপুর হয়ে ডিহির সালকোনা মাঠ ও শিকারপুর এবং ভারতের মেহরানী ও কুরুলিয়া হয়ে ডিহির টেংরালীর পশ্চিম মাঠ নিমজ্জিত হয়ে কাশিপুর ও সাড়াতলা ব্রীজ হয়ে কপোতাক্ষ নদী ও বনবান্দার বিলে এসে পড়ছে।অতি বর্ষনে শার্শা প্রতিটি ছোট বড় বিলে ভেড়িবাধ দিয়ে মাছ চাষ করায় বাংলাদেশ ও ভারতের অতি বর্ষনের ফলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে আমন ফসল ও মাছের ঘের সহ শাক সবজি ক্ষেত সম্পূর্ন বিনষ্ট হয়েছে।
বেনাপোল শার্শা কৃষি কর্মকর্তা হিরক কুমার জানান, গত কয়েক দিনের অতি বর্ষনের ফলে ভারতীয় ও বাংলাদেশের পানিতে বেনাপোল ও শার্শায় ১ হাজার ৬শত হেক্টর আমন ফসলের জমি বিনষ্ট হয়েছে।প্রায় ৪শত হেক্টর আমন ফসল আংশিক নিমজ্জিত হয়েছে। তবে ভারতীয় পানি আসতে থাকলে আমন ফসলের ক্ষতি আরও বাড়তে পারে।
উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবুল হাসান জানান, গত ৩ দিনের অতি বর্ষনের ফলে ভারতীয় পানির চাপের বেনাপোল সাদীপুর পাচুয়ার বাওড় সহ কয়েকটি ঘের ভেসে গেছে। তাছাড়া ভারত ও বাংলাদেশের অতি বর্ষনে যতই পানির চাপ বাড়তে থাকবে তা অপরিকল্পিত ভেড়ি বাধ ও প্রবাহমান বেতনা নদী পাটা বাধের কারনেই উপচে পড়া পানিতে আমন ফসল ও মাছের ঘের ক্ষতি গ্রস্থহচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here