খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন: স্থগিত ৩ কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ চলছে

অনিয়মের কারণে স্থগিত খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তিন কেন্দ্রে আজ সকাল ৮টা থেকে পুনঃভোটগ্রহণ চলছে। ভোটগ্রহণ চলবে বিরতীহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

গত ১৫ মে অনুষ্ঠিত কেসিসি নির্বাচন চলাকালে সাধারণ ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইকবাল নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় (একাডেমিক ভবন-২), ৩১ নম্বর ওয়ার্ডের লবণচরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৩১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলরের কার্যালয় কেন্দ্রে অনিয়মের কারণে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। এদিকে, ভোট দানে বাধা, বুথ দখল, জাল ভোট ও হামলার আশঙ্কায় ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কম লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

রিটার্নিং অফিসার ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী বলেন, তিনটি কেন্দ্রেই ২২ জন অস্ত্রধারী পুলিশের পাশাপাশি তিনজন অস্ত্রধারীসহ ১৭ জন আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া রয়েছে র‌্যাবের চারটি মোবাইল টিম, পুলিশের তিনটি মোবাইল টিম ও একটি স্ট্রাইকিং ফোর্স, এক প্লাটুন বিজিবি এবং তিন কেন্দ্রে তিনজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

তিনি বলেন, পুনঃভোটগ্রহণের জন্য ওই তিনটি কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার এমনটি প্রার্থীদের এজেন্টও পরিবর্তন করে সম্পূর্ণ নতুন সেট আপ দিয়ে পুনঃভোটগ্রহণ করা হচ্ছে। তিনটি কেন্দ্রে ৫৭ জন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন।

উল্লেখ্য, কেন্দ্র তিনটির দু’টি সংরক্ষিত ও দু’টি সাধারণ ওয়ার্ডের আওতায় হলেও ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর পদে ভোটের ব্যবধান বেশি থাকায় বর্তমান কাউন্সিলর মো. শমশের আলী মিন্টুকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। ফলে সাধারণ ৩১ এবং সংরক্ষিত ৯ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ডের পুনরায় ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে।

পুনঃভোটগ্রহণে সাধারণ ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে মো. আরিফ হোসেন মিঠু (ব্যাডমিন্টন র‌্যাকেট), শেখ জাহাঙ্গীর হুসাইন হেলাল (টিফিন ক্যারিয়ার), এসএম আসাদুজ্জামান রাসেল (ঝুড়ি), কাজী মো. ইউসুফ আলী মন্টু (মিষ্টি কুমড়া), জিএম আব্দুর রব সজল (ট্রাক্টর), মো. আলী আজম মোল্লা (রেডিও), মো. আসলাম হোসেন (করাত), মো. গোলাম মোস্তফা সজিব (ঠেলাগাড়ি), মো. জাহিদ (ঘুড়ি) ও মো. শরিফুল ইসলাম মুন্না (লাটিম) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এছাড়া সংরক্ষিত দু’টি ওয়ার্ডের মধ্যে ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মাজেদা খাতুন (আনারস), রুমা খাতুন (চশমা), কোহিনুর আক্তার (বই), লিভানা পারভীন (গ্লাস), শাহনুর বেগম (মোবাইল ফোন) এবং সংরক্ষিত ১০ নম্বর ওয়ার্ডের লুৎফুন নেছা (চশমা), রোকেয়া ফারুক (হেলিকপ্টার), বিলকিস আরা বুলি (স্টিল আলমারি), মিসেস রোকসনা কালাম লিলি (মোবাইল ফোন), মোসা. হোসনেয়ারা (গ্লাস), সাহানা পারভীন (ডলফিন), হাসিনা আকরাম (আনারস) ও হোসনেয়ারা বেগম চাঁদনী (বই) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here