নবাবগঞ্জে এম.পি’র ব্যক্তিগত অর্থায়নে ভাঙ্গা বাঁধ সংস্কার

নবাবগঞ্জ প্রতিনিধি: নবাবগঞ্জে ব্যক্তিগত অর্থায়নে ভাঙ্গা বাঁধ সংস্কার করলেন দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক। উপজেলার ২নং বিনোদনগর ইউনিয়নের এলজিইডি’র ক্ষুদ্র সেচ প্রকল্পের অধীনে ওই ইউনিয়নে ১৭ কিলোমিটার বাঁধ ও সুইচ গেট নির্মাণ করা হয়। উপজেলা প্রকৌশলী দপ্তরসূত্রে জানা গেছে এলাকাবাসীর সেচ সুবিধা নিশ্চিত করতে ও বিভিন্ন মৌসুমে কৃষি ফসল উৎপাদনের উদ্দেশ্যকে সামনে নিয়ে প্রায় ৫ কোটি টাকা অর্থ বরাদ্দে রাঘবেন্দ্রপুর বাজার থেকে ইটপাড়া, চাকপাড়া হয়ে ওই ১৭ কিলোমিটার বাঁধ শাখা করতোয়া নদী সংলগ্ন দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে নির্মিত হয়। চলতি অর্থবছরে বর্ষা মৌসুমে বাঁধটি কিছু অংশ ধ্বসে গিয়ে ৫০ গ্রামের মানুষের পারাপারের দূর্ভোগ দেখা দেয়। চাকপাড়া গ্রামের স্কুল শিক্ষক মোকাররম হোসেন জানান- এই বাঁধের উপর দিয়ে রংপুরের মিঠাপুকুরের ২৫ গ্রাম ও দিনাজপুরের ২৫ গ্রামের জনসাধারণ পারাপার হয়ে থাকে। এলাকাবাসী অভিযোগ করে জানায়- ওই বাঁধের প্রকল্পের সভাপতি নিম্নমানের ও দায়সারা কাজ করার কারণে ১ বছর যেতে না যেতেই বাঁধটি ধ্বসে গিয়ে চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ে। এ বিষয়ে স্থানীয় ও জাতীয় পত্র-পত্রিকাসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ শিবলী সাদিক তার নিজ অর্থায়নে উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ স্থানীয় মানুষের সহায়তায় ১ সপ্তাহ ধরে ভেঙ্গে যাওয়া বাঁধটি চলাচলের উপযোগী করে তুলছেন। এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ৯নং কুশদহ ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সায়েম সবুজের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- এমপির অর্থায়ন ও তার নির্দেশেই আমরা বাঁধটি সংস্কার করতে সক্ষম হয়েছি। এ বিষয়ে নির্মাণ করা বাঁধের সভাপতি সাবেক ২নং বিনোদনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলাম (ফতেহ্) জানান- বিধি অনুযায়ী বাঁধ ও সুইচ গেট নির্মাণ করা হয়েছে। বাঁধের পাশ দিয়ে বয়ে গেছে শাখা করতোয়া নদী। বর্ষা মৌসুমে নদীর পানি আর মাঠের পানির কারণে কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে। এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আঃ কুদ্দুসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- বাঁধটি পরবর্তী সংস্কার, মেরামত ও বিভিন্ন স্থানে ব্রীজ নির্মাণের জন্য এলজিইডি’র ক্ষুদ্র সেচ প্রকল্পে প্রস্তাবনা প্রেরণ করা হবে। এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মনোয়ার হোসেন জানান- এমপি সাহেবের মহৎ উদ্দ্যেগের কারণে ৫০ গ্রামের মানুষের চলাচল সুবিধা বাড়বে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here