Connect with us

দেশজুড়ে

সুদখোর মহাজনদের বেড়াজালে আটকা পড়েছে বাঘা উপজেলার হতদরিদ্র মানুষ

Avatar photo

Published

on

বাঘা, রাজশাহী:
রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় সুদখোর মহাজনদের বেড়াজালে আটকা পড়েছে গ্রামের হতদরিদ্র সাধারণ মানুষ। ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পেরে তাদের অনেকে ইতোমধ্যে ঘর-বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে গেছেন।
সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় শতাধিক সুদখোর মহাজন বর্তমানে সক্রিয় রয়েছে। এলাকার সাধারণ ও নিম্ন আয়ের মানুষের আর্থিক অস্বচ্ছলতার সুযোগ নিয়ে সুদি কারবার করে চলেছে এসব অর্থলোভী মহাজন। তারা এলাকার দরিদ্র মানুষের দৈন্যদশার সুযোগে চেক, বড়ি-ঘর, স্বর্ণালঙ্কার বা দামি জিনিসপত্র ইত্যাদি বন্ধক নিয়ে সাদা কাগজ বা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নিয়ে টাকা দাদন দেন। পরে এসব ঋণ গ্রহিতাদের মাসে শতকরা ১০ থেকে ২০ টাকা হারে সুদ প্রদান করতে হয়। এভাবে প্রতি মাসের লভ্যাংশের টাকা নিয়মিত পরিশোধ করলে সবকিছু স্বাভাবিক থাকে। বছরে দুইবার অর্থাৎ জুন ও ডিসেম্বর মাসে ক্লোজিংয়ের সময় মহাজনের হাতে সুদ-আসলে টাকা জমা দিতে হয়। কিন্তু কিস্তি দিতে ব্যর্থ হলেই যত বিপত্তি। হিসাব করে দেখা গেছে, সুদখোরদের খাটানো সুদের হার অনুযায়ী বার্ষিক শতকরা সুদ হয় ১৮০ টাকা। গ্রামের দরিদ্র লোকজন এ হারে সুদ প্রদান করতে পারে না প্রায়ই। ফলে এক সময় সুদের ভারে ভারাক্রান্ত হয়ে তারা তাদের শেষ সম্বলটুকু পর্যন্ত হারান। যারা এসব সুদখোরের কাছ থেকে দাদন নেন তারা কোনোভাবেই এ ব্যাপারে মুখ খুলতে রাজি হননি। কারণ হিসেবে জানা গেছে, এর আগে এ নিয়ে অত্র এলাকায় বিভিন্ন ঝামেলা সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়গুলো থানা পুলিশ পর্যন্ত গড়িয়েছিল বলে জানায় এলাকাবাসি। শেষ পর্যন্ত সুদখোর মহাজনদের পেশি শক্তির কাছে পরাস্ত হতে হয় এসব ঋণগ্রহীতাদের। দুই-একজন মুখ খুললেও নাম প্রকাশ না করার অনুরোধও করেন।
জানা গেছে, তেপুকুরিয়া গ্রামের স্কুলশিক্ষক এইচ এম সাঈদ দাদনের টাকা শোধ করতে না পেরে সুদখোরকে তার ব্যাংকের চেক বইয়ের পাতা স্বাক্ষর করে দিতে বাধ্য হন। তার জায়গাজমি বিক্রি করেও সুদের টাকা পরিশোধ হয়নি। বর্তমানে তিনি পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। একই এলাকার ঝুন্টু সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে পরিবার-পরিজন নিয়ে এলাকা ছেড়ে চলে গেছেন। এ ছাড়া আমোদপুর গ্রামের শফিকুল বেশ কিছুদিন আগে এক মহাজনের কাছ থেকে তিন লাখ টাকা সুদে-আসলে পরিশোধ করার শর্তে ঋণ নেন। ক্রমেই সেই টাকা বেড়ে প্রায় আট লাখ টাকা হয়ে যায়। অবশেষে তিনি টাকা দিতে না পেরে ছেলে-মেয়ে রেখে অন্যত্র পাড়ি জমিয়েছেন বলে জানা গেছে।
এদিকে চণ্ডিপুর এলাকার পলান সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে ঘরবাড়ি ফেলে পালিয়েছেন পরিবার-পরিজন নিয়ে। আর একজন দেশের বাইরে পালিয়ে গেছেন বলে জানা যায়। এ ব্যাপারে বাঘা ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আবদুল গফুর মিঞা বলেন, যেভাবে এ উপজেলায় সুদি মহাজনদের কারবার শুরু হয়েছে তাতে আগামী চার-পাঁচ বছরের মধ্যে এলাকার বেশির ভাগ লোক এর সাথে জড়িয়ে পড়বে এবং চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।
এ ব্যাপারে সুদ প্রদানকারী মহাজনদের কয়েকজনের সাথে কথা বললে তারা বলেন, মানুষের প্রয়োজনের সময় টাকা দাদন দিয়ে আমরা তাদের উপকার করি। এর বিনিময়ে আমরা তাদের কাছ থেকে সামান্য পরিমাণ সুদ নিয়ে থাকি। এটাও যদি তারা পরিশোধ করতে না পারে তাহলে আমাদের তো করার কিছু নাই।

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

গাজীপুর

গাজীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় শ্রমিকের মৃত্যু, মহাসড়ক অবরোধ-গাড়ি ভাংচুর

Avatar photo

Published

on

গাজীপুর মহানগরীর কুনিয়া তারগাছ এলাকায় মহাসড়ক পার হওয়ার সময় গাড়ির ধাক্কায় এক নারী পোশাক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ ও ভাঙচুর করছেন অন্যান্য শ্রমিকরা।

শনিবার সকাল ৮টায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক এ ঘটনা ঘটে। জিএমপির উপ পুলিশ কমিশনার (অপরাধ-দক্ষিণ) মো. ইব্রাহিম খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নিহত শ্রমিকের নাম মোসাম্মৎ মনিরা বেগম (৩৫)। তিনি শরীয়তপুর জেলার সখিপুর থানার তালিতাকান্দি গ্রামের রুহুল আমিনের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত ওই নারী শ্রমিক স্থানীয় লিজ কমপ্লেক্স গার্মেন্টসে কাজ করতেন। তিনি পরিবার নিয়ে মহানগরীর তারগাছ এলাকায় রড ফ্যাক্টরি সংলগ্ন হাশেমের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তিনি এক সন্তানের জননী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার সকালে গাজীপুর মহানগরীর গাছা থানাধীন কুনিয়া তারগাছ এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক পার হওয়ার সময় গাজীপুর সিটি করপোরেশনের একটি ময়লার গাড়ি ওই নারীকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনায় শ্রমিক নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের বিভিন্ন পোশাক শ্রমিকেরা উত্তেজিত হয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় মহাসড়কে বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ওই এলাকায় ঘটনাস্থলের উভয় পাশে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

জিএমপির উপ পুলিশ কমিশনার (অপরাধ-দক্ষিণ) মো. ইব্রাহিম খান বলেন, মহাসড়ক পার হওয়ার সময় সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ির চাপায় এক নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আমরা মরদেহ উদ্ধার করেছি। ঘটনার পর স্থানীয় শ্রমিকেরা ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেছে। তারা কয়েকটি যানবাহন ভাঙচুর করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কাজ করছে।

Continue Reading

গাজীপুর

মহান শহীদ দিবস উপলক্ষ্যে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বাংলাদেশ ইয়ুথ ইউনিটির পুষ্পস্তবক অর্পণ

Avatar photo

Published

on

নুরে আলম, গাজীপুর :
মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ ইয়ুথ ইউনিটির পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। একুশের প্রথম প্রহরে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি মাসুদ রানা এরশাদ, সাধারণ সম্পাদক মো. আহসান উল্লাহ বিপ্লব, সহ-সভাপতি মো. সাব্বির হোসেন, ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পাদক মেরাজুল ইসলাম ভুঁইয়া, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সবুজ মিয়া, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয় সম্পাদক মেহরাব হোসেন, সহ-দপ্তর সম্পাদক মো. রাকিবুল ইসলাম, তানভির সিকদার, সহ-যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মৃদুল চন্দ্র সরকার, সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক হিমেল মোল্লা, সহ-সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক সোহরাব হোসেন সেতু, সহ-ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পাদক, সদস্য নাঈম হোসেন, হাসান, মিশকাত, রাব্বি প্রমুখ।

Continue Reading

গাজীপুর

গাজীপুর বিআরটিএ অফিসে রিফ্রেসার প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

Avatar photo

Published

on

নুরে আলম, গাজীপুর :
“আইন মেনে সড়কে চলি নিরাপদে ঘরে ফিরি ” – স্লোগানকে লক্ষ্য রেখে পেশাজীবী গাড়িচালকদের ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়নকালে দক্ষতা ও সচেতন বৃদ্ধিমূলক রিফ্রেসার প্রশিক্ষণ ২৪ অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা পেশাজীবী গাড়ি চালকরা উপস্থিত ছিলেন ও প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। রাস্তায় গাড়ি চালানোর নিয়ম-নীতি সম্পর্কে চালকদের অবগতি করা হয়।

পেশাজীবী গাড়ি চালকরা বলেন, এ প্রশিক্ষণে আমরা অনেক উপকৃত হয়েছি রাস্তায় গাড়ি চালানো বিভিন্ন নিয়ম নিয়ে আমাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয় গাজীপুর বিআরটিএ সেবা নিয়ে গ্রাহকরা জানালেন এখন স্বস্তির বাণী ।

বিআরটিএ গাজীপুর সার্কেল এর সহকারি পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আবু নাঈম সাংবাদিকদের বলেন, এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ড্রাইভাররা রাস্তায় ট্রাফিক সিগনাল এবং দুর্ঘটনা না হয় ও গাড়ি চালানোর বিভিন্ন নিয়ম শিখিয়ে থাকে।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বি আর টি এ গাজীপুর সার্কেলের মোটরযানপরিদর্শক মোহাম্মদ সাইদুর রহমান সুমন।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বি আর টি এ গাজীপুর সার্কেলের মোটরযান পরিদর্শক মোহাম্মদ ওয়াহিদুর রহমান, মেকানিক্যাল এসিস্ট্যান্টে শেখ মোহাম্মদ আদিয়াত ও ইন্সপেক্টর ফজলুল হক।

Continue Reading