Bangladesherpatro.com

৪র্থ ম্যাচে সান্তনা জয় পেল অস্ট্রেলিয়া

নিউজ ডেস্ক:
অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চর্তুথ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ব্যাটিং ব্যর্থতায় পরে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১০৪ রান করে বাংলাদেশ। টাইগারদের দেওয়া ১০৫ রানের মামুলি এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারের আগে ৩ উইকেটের জয় পায় সফরকারীরা। এই জয়ে ৫ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ এখন ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ।

শনিবার মিরপুর স্টেডিয়ামে লক্ষ্য তাড়া করতে শুরুটা ভালো করতে পারেনি অস্ট্রেলিয়া। অজিদের বিপক্ষে প্রায় প্রতিটি ম্যাচেই শুরুতে উইকেট পেয়ে বাংলাদেশ দলকে এগিয়ে দেন শেখ মেহেদী। আজও অজি শিবিরে আঘাত হানে এই স্পিনার। ইনিংসের প্রথম ওভারের চতুর্থ বলে বোল্ড অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড। মেহেদীর বল ব্যাট-প্যাডের ফাঁক দিয়ে আঘাত হানে ওয়েডের স্ট্যাম্পে। আউট হওয়ার আগে এই ব্যাটসম্যান করে ৩ বলে মাত্র ২ রান।

এরপর টানা দুই ওভারে অস্ট্রেলিয়ার দুই ব্যাটসম্যানকে মাঠছাড়া করল বাংলাদেশ। চতুর্থ ওভারে সাকিব আল হাসানকে পাঁচটি ৬ মেরে ৩০ রান তোলেন ড্যান ক্রিস্টিয়ান। ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা এই ব্যাটসম্যানকে ষষ্ঠ ওভারে আউট করেন মোস্তাফিজুর রহমান। ১৫ বলে ৩৯ রান করেন তিনি। প্রথম ওভারেই বাজিমাত করলেন কাটার মাস্টার, রান তো দেনইনি, নিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ উইকেট। আগের ওভারে অজি ব্যাটসম্যান বেন ম্যাকডারমটকে (৫) এলবিডাব্লিউ করেন নাসুম আহমেদ।

ড্যান ক্রিস্টিয়ানের পরে অজি শিবিরে আঘাত হানে সাকিব আল হাসান। তিনি রান আউট করলেন মোয়াসেস হেনরিকসকে। নিজের তৃতীয় ওভারে মিচেল মার্শের শট তার হাত ছুঁয়ে স্টাম্পে আঘাত করে। আউট হওয়ার আগে এই ব্যাটসম্যান করে ৯ বলে ৪ রান।

সাকিবের পরের ওভারে মোস্তাফিজুর রহমান আবার বল হাতে নিয়ে আরো একটি উইকেট পান। অ্যালেক্স ক্যারিকে এলবিডাব্লিউ করেন কাটার মাস্টার। এদিকে আগের তিনটি ম্যাচেই মিচেল মার্শ বাংলাদেশকে বেশ ভুগিয়েছেন। চতুর্থ ম্যাচেও সেই দিকে যাচ্ছিলেন। তবে বাধা হয়ে দাঁড়ালেন মেহেদী। অফ লেন্থে করা বল টার্ন নিয়ে ভেঙে দেয় মার্শের স্ট্যাম্প। ১৫ বলে ১১ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই অজি অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান। তবে শেষ দিকে অ্যাশটন অ্যাগারের ব্যাট থেকে আসে ২৭ রান মূলত ঐ রানের কারণেই জয় নিশ্চিত হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার।

বাংলাদেশ একাদশ:

সৌম্য সরকার, নাইম শেখ, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), নুরুল হাসান সোহান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম পাটোয়ারী, শেখ মাহেদি হাসান, নাসুম আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম।

অস্ট্রেলিয়া একাদশ:

বেন ম্যাকডরমট, অ্যালেক্স কারে, মিচেল মার্শ, ময়েসেজ হেনড্রিকস, অ্যাশটন টার্নার, ম্যাথু ওয়েড (অধিনায়ক), অ্যাশটন অ্যাগার, ড্যান ক্রিশ্চিয়ান, অ্যান্ড্রু টাই, মিচেল সুয়েপসন, জশ হ্যাজলেউড।

Leave A Reply

Your email address will not be published.