Bangladesherpatro.com

সাইফের সেঞ্চুরি, ইমরুল-তুষারের আক্ষেপ

6

খেলা ডেস্ক:
বঙ্গবন্ধুর জাতীয় ক্রিকেট লিগের ২২তম আসর শুরু হয়েছে গতকাল সোমবার। প্রথম স্তরের ম্যাচে সেঞ্চুরি পেয়েছেন সাইফ হাসান। অন্যদিকে ইমরুল কায়েস ও তুষার ইমরানকে পুড়তে হয়েছে সেঞ্চুরি মিসের আক্ষেপে। খুলনা শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে প্রথম স্তরের ম্যাচে স্বাগতিক খুলনা মুখোমুখি হয়েছে সিলেটের।

প্রথম শ্রেণির প্রতিযোগিতায় আগে ব্যাটিং করে খুলনা প্রথম দিন শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩০৮ রান সংগ্রহ করেছে। ইমরুল কায়েস ১০ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেছেন। ১২৭ বলে ১০ চার ও ২ ছক্কায় ৯০ রান করেছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান করা তুষার ইমরানের তো আরও বড় দুর্ভাগ্য। সেঞ্চুরি থেকে ১ রান দূরে থাকতে রানআউটের শিকার হন খুলনার এই ব্যাটসম্যান!

১১৭ বলে ৯৯ রান করেন তুষার। সিলেটের বোলারদের মধ্যে আবু জায়েদ রাহী ও এবাদত হোসেন ২টি করে উইকেট নিয়েছেন। এ ছাড়া খালেদ আহমেদ ও এনামুল হক জুনিয়র নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

প্রথম স্তরের আরেক ম্যাচে ঢাকা বিভাগ মুখোমুখি হয়েছে রংপুর বিভাগের। ম্যাচটিতে সেঞ্চুরি পেয়েছেন সাইফ হাসান। ২৩৩ বলে ১২৭ রানের ইনিংস খেলে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে পঞ্চম সেঞ্চুরি পূরণ করেন সাইফ। যদিও সাইফের ঢাকা শূন্য রানে ২ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছিল। তৃতীয় উইকেটে সাইফ ও মাহিদুল ইসলামের ৭৯ রানের জুটিতে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেয় ঢাকা।

মাহিদুল ৯১ বলে ৪৭ রান করে আউট হলে জুটি ভাঙে তাদের। আসা-যাওয়ার মিছিলে একপ্রান্ত আগলে রেখেছিলেন সাইফ। অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরীর ব্যাট থেকে আসে ৬৯ রানের ইনিংস। নাদিফের আউট হওয়ার আগে সাইফ ২৩৩ বলে ১১ চার ও ৫ ছক্কায় নিজের ১২৭ রানের ইনিংসটি সাজান। সাইফের সেঞ্চুরি ও নাদিফের হাফসেঞ্চুরির ওপর ভর করে ঢাকা দিনশেষে ৮ উইকেট হারিয়ে করেছে ২৯৭ রান। রংপুরের আলাউদ্দিন বাবু ২৫ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন। এ ছাড়া মাহমুদুল ইসলাম ২ এবং সোহরাওয়ার্দী শুভ ও মুকিদুল ইসলাম নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

Leave A Reply

Your email address will not be published.