কবিতা-অমর বিদ্রোহী

1

তাপস বিশ্বাস

তোমার রণসংগীতের
সঞ্জীবনী সুধা
দুর্দান্ত গতি আনে
কিশোর-কিশোরীর হাত-পায়ের
নান্দনিক ছন্দে,
বিশুদ্ধ সৈনিকের
শত্রু-বিনাশী চেতনায়।

কবিতাতোমার অগ্নিবীণার ঝংকার
শোষকের বুকে ভীতি আনে
তার হাঁটুর কাঁপনে সরে যায়
পায়ের তলার মাটি,
শোষিতের রক্তে জ্বালায়
দ্রোহের অগ্নিশিখা,
সে আগুনে পুড়ে ছারখার হয়
শোষণের পিঞ্জর।

 

তোমার বিষের বাঁশির সুর
অনুরণিত হয় নিশিদিন
সভ্যতা অথবা অসভ্যতার
আদি হতে অন্ত পর্যন্ত,
সে সুরে সম্মোহিত হয়
মানুষরূপী সাপ,
ভুলে যায় ছোবল দিতে
ফণা আয়ত্ত্বে নেয় সাপুড়ে
ভেঙে ফেলে বিষদাঁত।

তোমার কালজয়ী লেখা
রাজবন্দীর জবানবন্দী
সবযুগের বন্দীর কন্ঠস্বর,
সে স্বরে নড়ে যায়
অত্যাচারী রাজার সিংহাসন,
তোমার লেখার জাদুর ছোঁয়ায়
ফুলে ওঠে বিদ্রোহীর পেশী।

এক জীবনে বার বার
মৃত্যুক্ষুধা জাগে সবার
মৃত্যুর আলিঙ্গন তবু
এড়াতে চায় সবাই,
নিয়তির বিধান মেনে
তুমিও চলে গেছ হাসিমুখে,
নশ্বর দেহ মরেছে বটে
অস্তিত্ব তোমার অবিনশ্বর।

তোমার জ্বালানো প্রলয় শিখা
যুগ যুগ জ্বলবে দ্বিধাহীন,
সে শিখার তাপে
গলে জল হবে
শৃংখলিতের পায়ের শিকল,
মরেও অমর তুমি বিপ্লবী
তোমার চরণে লাল সালাম।

উৎসর্গঃ বিদ্রোহী কবি
কাজী নজরুল ইসলাম।

1 Comment

Leave A Reply

Pinterest
Print