কোরবানির ঈদের পর চুড়ান্ত আন্দোলন: মাহবুব

0

mahbub picস্টাফ রিপোর্টার:
নির্দলীয় সরকারের অধীনে দ্রুত নির্বাচনে দাবিতে শুরু করা ২০ দলীয় জোটের ‘অহিংস’ আন্দোলন ঈদ-উল-আজহার পর নতুন মাত্রা পাবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান।
গতকাল দুপুরে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “ঈদ-উল-আজহার পর আমাদের আন্দোলন নতুন মাত্রা নেবে। সেভাবেই আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি।” নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি সংবিধানে যুক্ত করার দাবিতে বিএনপি আন্দোলন চালিয়ে এলেও সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকা অবস্থাতেই নির্বাচন হবে। মাহবুবুর রহমান বলেন, “নির্দলীয় সরকারের অধীনে দ্রুত নির্বাচনের দাবিতে আমরা অহিংস আন্দোলনে আছি। গাজায় ইসরায়েলি বাহিনী কর্তৃক ফিলিস্তিনি হত্যাকাণ্ড ও গণবিরোধী জাতীয় সম্প্রচার নীতির বিরুদ্ধে আমরা কর্মসূচি করেছি। সংসদে বিচারপতিদের অভিশংসনের বিরুদ্ধেও আমাদের কর্মসূচি চলছে।” জিয়াউর রহমানের আহ্বানেই মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল দাবি করে তিনি বলেন, “মুক্তিযুদ্ধের মূল প্রেরণা ছিল গণতন্ত্রের মাধ্যমে দেশ পরিচালিত হবে। আজ সেই গণতন্ত্র বিপন্ন। ভয়াবহ বিপদের মধ্যে আমরা আছি। গণতন্ত্র বিনষ্ট করে সরকার দেশকে একদলীয় বাকশালী শাসন ব্যবস্থার দিকে নিয়ে যাচ্ছে।” বর্তমান সংসদকে ‘জনপ্রতিনিধিত্বহীন’ দাবি করে তিনি বলেন, “এই সংসদ একটি অকার্যকর সংসদ। তাই মুক্তিযোদ্ধাদের দাবি হচ্ছে- অবিলম্বে এই সংসদ ভেঙে দেয়া হোক।” জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংগঠনের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের নেতৃত্বে নেতা-কর্মীদের নিয়ে জিয়ার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনের পর প্রয়াত নেতার আÍার মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করেন তারা। মুক্তিযোদ্ধা দলের নেতা সাদেক আহমেদ খান, শাহ মো. আবু জাফর, ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, শফিউজ্জামান খোকন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave A Reply

Pinterest
Print