খালেদা জিয়া ছাড়া দেশে আর কোনো নির্বাচন হবে না – ফখরুল

0

ফাইল ফটো

আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ছাড়া দেশে আর কোনো নির্বাচন হবে না ও হতে দেওয়া হবে না – এমনটি বলেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর । আজ জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পূর্বঘোষিত এক মানববন্ধনে একথা বলেন তিনি ।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচনে আমরা দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই অংশ নেব। তাকে ছাড়া আমরা কোনো নির্বাচনেই অংশগ্রহণ করব না।

দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সব মামলা প্রত্যাহার করে অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত পূর্বঘোষিত এক ঘণ্টার মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বিএনপি।

মানববন্ধনে মির্জা ফখরুল বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত না হবেন ততক্ষণ পর্যন্ত গণতান্ত্রিক আন্দোলন থামানো যাবে না। শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হবে।

এ সময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আজকের এই জনস্রোত থেকে আমাদের একটিই দাবি, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, দিতে হবে। মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে।

এ সময়ে মানববন্ধনে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, জয়নাল আবদীন ফারুক, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মানববন্ধনে ২০ দলীয় জোটের নেতারাও অংশ নেন। মানববন্ধন কর্মসূচিকে ঘিরে প্রেস ক্লাবের সামনে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

উল্লেখ্য, জিয়া এতিমখানা দুর্নীতি মামলার রায়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। ওই রায়ের পর বিএনপি শুক্র ও শনিবার সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে। এরপর শনিবার ঢাকাসহ সারাদেশে তিনদিনের টানা কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়, যার প্রথম কর্মসূচি এই মানববন্ধন। এর ধারাবাহিকতায় আজ সোমবার অবস্থান এবং পরদিন বুধবার অনশন কর্মসূচিরও ঘোষণা রয়েছে।

Leave A Reply

Pinterest
Print