জলঢাকায় ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের মামলায় প্রধান শিক্ষক কারাগারে

0

শরিফুল ইসলাম প্রিন্স,জলঢাকা: নীলফামারীর জলঢাকা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের মামলায় ঐ স্কুলের প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে থানা পুলিশ। মামলা নং-৮ তারিখ ০৮.০৯.১৮।
মামলা সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে জলঢাকা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত) প্রধান শিক্ষক এ.কে.এম ওয়ারেজ আলী সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিভিন্ন সময়ে অনেক প্রলোভন দেখিয়ে কু-প্রস্তাব দিয়ে মোবাইলে অনেক অশালীন কথা-বার্তা বলতো, এমন কি কথা বলার সুবিধার জন্য ঈদের আগে ঐ ছাত্রী কে বাংলালিংকের একটি সিম কিনে দেন তিনি।
গত ৬ সেপ্টেম্বর ১৮ উপবৃত্তির টাকা দিবে বলে ঐ ছাত্রী কে ফোন করে স্কুলে ডেকে নিয়ে আসে প্রধান শিক্ষক, এসময় স্কুলে কোন ছাত্রী শিক্ষক না থাকার সুযোগে ঐ ছাত্রীকে একা পেয়ে যৌন নির্যাতনের চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় নির্যাতিত ছাত্রীর নানী আলেয়া বেওয়া বাদী হয়ে শনিবার দুপুরে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার বিকেলে লম্পট ঐ প্রধান শিক্ষককে স্কুল থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
এ বিষয়ে জলঢাকা থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান জানান, সুনিদৃষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ঐ প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave A Reply

Pinterest
Print