জামালপুরে ট্রেন-ইজিবাইক সংঘর্ষে নিহত ৪, আহত ৩

0

জামালপুর শহরের বিজিবি ক্যাম্প সংলগ্ন চন্দ্রা ঘুমটি ঘর লেভেল ক্রসিংয়ে যাত্রীবাহী লোকাল ট্রেনের সাথে সংঘর্ষে যাত্রীবাহী ইজিবাইকের চারজন যাত্রী নিহত এবং তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন। জামালপুর-দেওয়ানগঞ্জ রেলপথের ওই ঘুমটি ঘরে বুধবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন জামালপুর পৌরসভার কম্পপুর গ্রামের মো. সানোয়ার হোসেন (৪০) ও ইজিবাইকচালক আব্দুর রহিম (৪৫), জামালপুর পৌরসভার চন্দ্রা গ্রামের মীর হোসেন (৪০) ও জামালপুর সদরের শাহবাজপুর ইউনিয়নের বাঁশচড়া গ্রামের ইন্তাজ আলী (৫০)। গুরুতর আহত জামালপুর পৌরসভার কম্পপুর গ্রামের সালেহা বেগমসহ (৫০), হোসেন আলী (৩৩) ও ফরিদকে প্রথমে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জামালপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া দেওয়ানগঞ্জগামী একটি যাত্রীবাহী লোকাল ট্রেন বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে চন্দ্রা ঘুমটি ঘর রেলওয়ে লেভেলক্রসিং অতিক্রম করার সময় যাত্রীবাহী একটি ইজিবাইক চলন্ত ট্রেনটির সাথে ধাক্কা খায়। এতে ইজিবাইকটি ভেঙে ধুমড়েমুচড়ে ছিটকে রাস্তার খাদে পড়ে যায়। দুর্ঘটনায় ইজিবাইকের যাত্রী সানোয়ার হোসেন ঘটনাস্থলেই নিহত হন। বাকি তিনজন জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে মারা যান।

এ দিকে দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয় লোকজন উদ্ধার কাজে অংশ নেন। দুর্ঘটনাস্থলে বিপুল সংখ্যক লোক ভিড় করেন। ব্যস্ততম জামালপুর-মেলান্দহ পাকা রাস্তার ওই লেভেলক্রসিংয়ে গেইটবেরিয়ার এবং গেটম্যান নেই দীর্ঘদিন ধরে। ফলে সেখানে মাঝে মধ্যেই ছোটবড় দুর্ঘনা ঘটে থাকে। এর আগেও সেখানে ট্রেনের সাথে সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন মানুষ নিহত এবং যানবাহনের ক্ষতি হয়েছে।

জামালপুর রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিরুল ইসলাম মজুমদার জানান, ‘দুর্ঘটনার পরপরই খবর পেয়ে থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে। তারা তদন্ত করে দেখছে।’ ঘটনাস্থলে নিহত সানোয়ার হোসেন নামের একযাত্রীর লাশ উদ্ধার করে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতালে নিহত তিনজনের লাশও মর্গে নেওয়া হয়।

Leave A Reply

Pinterest
Print