টোল আদায়ের প্রতিবাদে গুরুদাসপুরে অটোরিকসা-ভ্যান চালকদের হরতাল

0

জালাল উদ্দিন, গুরুদাসপুর(নাটোর)প্রতিনিধি. গুরুদাসপুর উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নের খেটে খাওয়া অটোরিকসা-ভ্যান শ্রমিকরা পৌরসভা কর্তৃক টোল আদায়ের প্রতিবাদে মাইকিং করে হরতালের ঘোষণা দেয়। মঙ্গলবার সকাল থেকে পৌর এলাকার প্রবেশ মুখে রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ও গাছের গুড়ি ফেলে অটোরিকসা-ভ্যান সহ টেম্পু, সিএনজি, গরুর গাড়ি ইত্যাদি যানবাহন চলাচলে বাধা প্রদান করায় স্থবির হয়ে পড়েছে পৌর সদরের কমার্শিয়াল পয়েন্ট চাঁচকৈড় মোকাম।
সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ইউনিয়ন পর্যায়ের কোন অটোরিকসা-ভ্যান পৌর এলাকায় প্রবেশ না করায় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বানিজ্যিনগরী চাঁচকৈড় হাটটি অচল হয়ে পড়েছে। পৌর এলাকা থেকে কোন অটোরিকসা-ভ্যান চালকদের ইউনিয়ন পর্যায়ে যেতে দিচ্ছে না হরতাল সমর্থকরা এবং ইউনিয়ন পর্যায় থেকেও পৌর এলাকায় প্রবেশ করতে দিচ্ছে না।
পৌরসভার বাইরের একাধিক অটোরিকসা-ভ্যান চালক বলেন, আমারা ইউনিয়ন পরিষদ থেকে লাইসেন্স নিয়েছি। এরপরেও আমাদের কাছ থেকে অবৈধভাবে টোল আদায় করছে। আমাদের দাবী টোল আদায় বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত হরতাল চলতে থাকবে।
মঙ্গলবার বেলা ১১টায় গুরুদাসপুর উপজেলা আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র শাহনেওয়াজ আলী তার অফিসে সাংবাদিকদের এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, সারাদেশের সকল পৌরসভার ন্যায় গুরুদাসপুরেও অটো রিকসা-ভ্যান চালকদের কাছ থেকে টোল আদায় শুরু করা হয়েছে। স্থানীয় সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস পৌরসভার সকল উন্নয়ন কার্যক্রম বাধাগ্রস্থ করার হীন উদ্দেশ্য অসহায় খেটে খাওয়া অবৈধ অটোরিকসা-ভ্যান চালকদের দিয়ে পৌরসভার বাইরে হরতাল করানোর চেষ্টা করছে।
তিনি আরও বলেন, মাইকিং করে আমার শান্ত পৌরসভাকে অশান্ত করার উদ্দেশ্যে হরতাল বিরোধী অটোরিকসা-ভ্যান চালকদের বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি সহ মারপিট করা হয়েছে। স্থানীয় সাংসদ চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে থাকায় এ ব্যাপারে তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

Leave A Reply

Pinterest
Print