নেত্রকোনায় পিতাকে হত্যার দায়ে ছেলের ফাঁসি

0

নেত্রকোনা প্রতিনিধি : সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় বাবা বুধু মিয়াকে (৭৫) কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে হত্যার দায়ে ছেলে মোহাম্মদ আবদুল হেকিমকে (৪০) মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। নেত্রকোনার অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আব্দুল হামিদ সোমবার সকাল ১১টায় এ আদেশ দেন। এ সময় আসামি জনাকীর্ণ আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মোহাম্মদ আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জানান, কেন্দুয়া উপজেলার কুতুবপুর গ্রামের বুধু মিয়ার ছেলে হেকিম বিভিন্ন সময় তার বাবাকে সমস্ত সম্পত্তি নিজের নামে লিখে দিতে চাপ দিচ্ছিলেন। ২০০৬ সালের ৮ অক্টোবর বুধু মিয়া দুপুরে খাওয়া দাওয়া শেষ করে নিজ ঘরে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। এ সময় তার ছেলে হেকিম আবারও জমি লিখে দিতে বললে বাবা অপারগতা প্রকাশ করেন। এতে হেকিম ক্ষিপ্ত হয়ে ঘরে থাকা কুড়াল দিয়ে বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে ছুটে এসে হেকিমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

এ ঘটনায় বুধু মিয়ার ভাতিজা শাহাদাৎ আলীর ছেলে মো. রিটন বাদী হয়ে ওইদিনই কেন্দুয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে ওই বছরের ৩০ নভেম্বর আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। বিচারক ছয়জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে সোমবার এ রায় প্রদান করেন। আসামি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এ্যাডভোকেট আশীষ কুমার সিংহ।

বাংলাদেশেরপত্র/এডি/এ

Leave A Reply

Pinterest
Print