নড়াইলে সংরক্ষিত মহিলা আসনের বিজয়ী প্রার্থীকে পরাজিত করায় আদালতে মামলা

0

ইউপি নির্বাচন

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল: নড়াইলে ইউপি নির্বাচনে রির্টানিং ও নির্বাচন অফিসারের ষড়যন্ত্রে বিজয়ী প্রার্থীকে গেজেটে পরাজিত করায় আদালতে মামলা দায়ের। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৮ মে উপজেলার মলি­কপুর ইউপি নির্বাচনে ২নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা আসনে হাসনা বেগম কলম মার্কা নিয়ে প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। তার প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী হিসেবে ছিলেন হামিদা বেগম বই মার্কা ও হোসনেয়ারা বেগম বক মার্কা। নির্বাচনী ফলাফলে হাসনা বেগম ৯৮ ভোট বেশি পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হয়। তার প্রাপ্ত ভোট ১১৫৯।
গত ১১ জুলাই গেজেট প্রকাশ হলে তাতে হতদরিদ্র বিজয়ী প্রার্থী হাসনা বেগমের পরিবর্তে প্রতিদ্বন্ধি প্রভাবশালী প্রার্থী হামিদা বেগম ১০৬১ ভোট প্রাপ্তকে বিজয়ী হিসেবে নাম প্রকাশ পায়। এতে এলাকার লোক ও হাসনা বেগম স্তম্ভিত হন। এলাকার লোক এটাকে নির্বাচন অফিসারের পুকুর চুরিকেও হার মানায় বলে অভিমত ব্যাক্ত করেন।
হাসনা বেগম উপজেলা নির্বাচন ও রির্টানিং অফিসার এটিএম শামীম মাহমুদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিভিন্ন টালবাহানা করে সময় ক্ষেপন করতে থাকে। এতে ক্ষতিগ্রস্থ্য হাসনা বেগম বিভিন্ন মহলে ধর্ণা দিয়েও কোন উপায়ান্ত না পেয়ে গত ১৮ জুলাই বাদী হয়ে প্রতিকার ও ন্যায় বিচার চেয়ে নড়াইল আদালতে ৮ জন অভিযুক্ত প্রার্থী হামিদা বেগম, হোসনেয়ারা বেগম, উপজেলা রির্টানিং ও নির্বাচন অফিসার এটিএম শামীম মহামুদ, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা, সচিব বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন ঢাকা, প্রিজাইডিং অফিসার এসএম তরিকুল ইসলাম, মো. নুরুজ্জামান ও হুমায়ুন কবিরকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেন।

Leave A Reply