নড়াইলে পুলিশের অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার, আটক ৩

0

1441173039_110187উজ্জ্বল রায়, নড়াইল: নড়াইল ডিবি পৃুলিশের বিশেষ অভিযানে নড়াইলের লোহাগড়া থেকে ২০ পিচ ইয়াবাসহ হাশমতকে আটক করেন নড়াইল পুলিষ সুপারের স্পেশাল টিমের সদস্যরা। টিমের নেতৃত্ব দেন এ.এস.আই হাসান, এ.এস.আই আলমগীর, কনস্টেবল নারায়ণ, শরীফ, শিমুল, মুরাদসহ ডিবির একটি চৌকশ টিম। অপরদিকে নড়াইলের নড়াগাতি থানা পুলিশ ৭৫২ পিছ ইয়াবা সহ রফিক শেখ (৩৮) ও মিল্টন শেখ (২০) নামে দুই মাদক ব্যাবসায়ীকে আটক করেছে। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে নড়াগাতি থানার দেবদুন এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। নড়াগাতি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাবিবুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার গভীররাতে নড়াগাতি থানার দেবদুন এলাকায় ডিউটি চলাকালে বাঐসোনা গ্রামের মনিরুজ্জামান শেখের ছেলে রফিক শেখ ও একইগ্রামের মাসুদ শেখের ছেলে মিল্টন শেখকে আটক করা হয়। এসময় সহকারী উপ-পরিদর্শক(এএসআই) বাবুল আক্তারসহ সঙ্গীয় ফোর্স তাদের তল্লাশী করে ৭৫২ পিচ ইয়াবা উদ্ধার করে। এঘটনায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান এসআই হাবিবুর রহমান। দেখে বোঝার উপায় নেই। শরীরে তল্লাশী করেও খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। ইয়াবা বহনের অভিনব কৌশল আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কল্পনাকেও এখন হার মানাচ্ছে। সহজে যাতে খুঁজে না পাওয়া যায় সেজন্য নারী মাদক পাচারকারীরা অভিনব কৌশলে ইয়াবা বহন করছেন। ইয়াবা বহনের বিশেষ কৌশল রীতিমতো বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে। বিশেষ পন্থায় নড়াইল জেলায় প্রতিনিয়ত প্রবেশ করছে মরণ নেশা ইয়াবা। রাষ্ট্রীয় একটি গোয়েন্দা সংস্থার সা¤প্রতিক প্রতিবেদন বলছে, নারী মাদক পাচারকারীরা গোপনাঙ্গের ভেতর ইয়াবা প্রবেশ করে নড়াইলে নিয়ে আসছেন। এসব নারী মাদক পাচারকারীরা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। দীর্ঘক্ষণ গোপন অঙ্গে ইয়াবা রাখার প্রশিক্ষণও আছে তাদের। জানা গেছে, নড়াগাতি থানা পুলিশ শুক্রবার বিশেষ অভিযান চালিয়ে ৭৫৭ পিচ ইয়াবা সহ দুইজনকে আটক করে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিতে তারা সংবেদনশীল অঙ্গকেই বেছে নিয়েছেন। এক্ষেত্রে তারা এখন পাচারের বাহন হিসেবে বাসকে ব্যবহার করছেন। নড়াইলে ইয়াবার বড় চালানই এখন বাসে আসছে। তবে মাঝে মাঝে তাদের রুট পরিবর্তন হয়। গোয়েন্দা প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, বর্তমানে ইয়াবা পাচারকারীরা নারীদের যৌনাঙ্গসহ সংবেদনশীল অঙ্গ, পুরুষরা পায়ুপথে ইয়াবা বহন করছেন। এছাড়া মাছ, চানাচুরের প্যাকেট, আসবাবপত্রের জয়েন্ট, মোটরসাইকেল, গাড়ির বিভিন্ন অংশ, এলপি গ্যাস সিলিন্ডার, সুপারি, ক্যামেরা, মোবাইল সেট, কুরিয়ার সার্ভিসসহ বিভিন্ন পদ্ধতিতে নড়াইল, কালিয়া, নড়াগাতি ও লোহাগড়ায় প্রায় ডিবি পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইয়াবাসহ তাদের আটক করতে সক্ষম হয়। দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রবেশ করছে মরণ নেশা ইয়াবা।

Leave A Reply

Pinterest
Print