পীরগাছায় সন্তানের পিতৃপরিচয় ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

0

নিজস্ব প্রতিনিধি, রংপুর:
রংপুরের পীরগাছায় গত বুধবার গর্ভজাত সন্তানের পিতৃপরিচয়, সাজানো মামলায় জড়িয়ে হয়রানি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে এক কুমারী মাতা। পীরগাছা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত ওই সংবাদ সম্মেলনে কুমারী মাতা তার লিখিত বক্তব্যে বলে, বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের পর অন্তঃসত্তা হয়ে প্রতারক প্রেমিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পরিবার-পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। প্রতারক প্রেমিকের লেলিয়ে দেয়া সন্ত্রাসীদের কথামত দায়ের করা মামলা তুলে না নেয়ায় তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে সাজানো ধর্ষণ চেষ্টার মামলা দায়ের করা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তা। ফলে দীর্ঘ এক মাস ধরে মানবেতর জীবন-যাপন করছে অসহায় ওই পরিবারের সদস্যরা।
জানা যায়, উপজেলার ফকিরা গ্রামের সায়েদ আলীর নাবালিকা কন্যা শারমিন আক্তার (১৬) এর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করে পার্শ্ববর্তী ছোট কল্যাণী কলু মিয়ার ছেলে শফিক মিয়া (২২)। অতঃপর শফিক বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারমিন আক্তারকে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিও মোবাইলে ধারণ করে তা প্রকাশের ভয় দেখিয়ে নিয়মিত মেলামেশা করতে থাকে। এতে শারমিন অন্তঃসত্তা হয়ে পড়লে বিষয়টি ফাঁস হয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় শুরু হলে শারমিনের পিতা, কন্যার গর্ভজাত সন্তানের পিতৃ পরিচয় দাবিতে পীরগাছা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলা দায়েরের পর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে প্রতারক শফিক ও তার লোকজন। তারা মামলা তুলে নেয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে শারমিনের পরিবারকে। তাদের কথামত মামলা তুলে না নেয়ায় শফিক তার আপন মামী রুবি আক্তারকে দিয়ে শারমিনের পরিবারের ৬ সদস্যের বিরুদ্ধে একটি সাজানো ধর্ষণ চেষ্টার মামলা দায়ের করে এবং শারমিনদের বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দেয়।
সংবাদ সম্মেলনে কুমারী মাতার পরিবারের সদস্যরা জানায়, শফিক ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর ভয়ে বর্তমানে তারা মানবেতর জীবনযাপন করছে। তাদেরকে ভিটে মাটি থেকে উচ্ছেদের পাঁয়তারা চালানো হচ্ছে। শারমিনদের বসতভিটা সংলগ্ন নিচু জমিতে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে ভূমি ধসের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। রাতের বেলা বাড়িতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ভীতি সৃষ্টি করা হচ্ছে।
এ বিষয়ে পীরগাছা থানার এসআই আব্দুল মালেক শাহ বলেন, মামলাগুলোর তদন্ত চলছে। পলাতক আসামি শফিককে গ্রেফতারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। শারমিনদের বাড়ির রাস্তা বন্ধের বিষয়টি জানেন না। তদন্ত করে দেখবেন।

Leave A Reply

Pinterest
Print