রংপুরে পিতা হত্যার বিচার চেয়ে সন্তানের সাংবাদিক সম্মেলন

0

রংপুর ব্যুরো: যাতায়াতের রাস্তা নির্মাণ ও মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীর হাতে খুন হওয়া আব্দুল কুদ্দুস কানড়া হত্যার বিচার ও আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে নিহতের পরিবার। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১২টায় নগরীর গুপ্তপাড়ায় অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলেনে এ দাবি জানানো হয়।
নিহতের ছোট ছেলে সুজন মিয়া লিখিত সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার বাজিতপুর গ্রামের কৃষক আব্দুল কুদ্দুস কানড়াকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে বিরোধে জড়ানো প্রতিবেশীরা। হত্যাকান্ডের দীর্ঘ ৯ মাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত আসামীদের কাউকেই গ্রেফতার করেনি সিআইডি পুলিশ। উল্টো মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি পুলিশ নিহতের পরিবারকে বিভিন্ন অযুহাতে আসামী গ্রেফতারে কালক্ষেপন করছে বলেও অভিযোগ করেন নিহতের পরিবার।
সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, আসামীরা মামলার পর পরই ক্ষিপ্ত হয়ে নিহতের পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এরপর আসামীরা নিহতের পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে। চতুর প্রকৃতির আসামী পক্ষ হাইকোর্ট থেকে জামিন নিতে গেলে হাইকোর্ট তাদেরকে চলিত মাসের ২০ জুনের মধ্যে রংপুরের চিফ জুডিশিয়্যাল মেজিস্ট্রেট আদালতে হাজিরের নির্দেশ প্রদান করে। হাইকোর্টের সেই নির্দেশ উপেক্ষা করে আসামীরা প্রকাশ্য দিবালোকে নিহতের পরিবারকে বিভিন্ন ধরণের ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। বর্তমানে আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় শাহিন, রফিকুল, রানা, স্বাধীন, লেলিন বর্তমানে নিজ বাড়িতে অবস্থান করে নিহত আব্দুল কুদ্দুসের পরিবারের সদস্যদেরকে মামলা তুলে নেয়া জন্য বিভিন্নভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ করেন তারা।
এসময় সংবাদ সম্মেলনে নিহতের স্ত্রী রাজেকা বেগম, ছেলে রাজু মিয়া ও মামুন মিয়া উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (সিআইডি) ফিরোজুল ইসলাম বলেন, আমি তো জানি আসামীরা বাড়িতে নেই। আর রংপুর চিফ জুডিশিয়্যাল মেজিস্ট্রেট আদালতে তাদের হাজির হওয়ার ব্যাপারে আমি অবগত নই।

Leave A Reply

Pinterest
Print