লক্ষীপুরে মসজিদে মোনাজাতকে কেন্দ্র করে হামলায় নিহত-১, ইমামসহ আটক-৩

0

লক্ষীপুর প্রতিনিধি: লক্ষীপুর সদর উপজেলার মধ্য কালিরচর গ্রামে মসজিদের ইমামের মোনাজাত না দেয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় মুসল্লী মোহাম্মদ নুর হোসেন নিহত হন। এ ঘটনায় জাকির হোসেনসহ দুইজন আহত হন। নিহত নুর হোসেন স্থানীয় মৃত রফিক উল্লাহর ছেলে।
স্থানীয়রা জানান, এর আগে শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ইমাম পক্ষের লোকজনের হামলায় ওই দুই ভাই গুরুত্বর আহত হন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় নুর হোসেনেকে ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ৭টায় মৃত্যু হয়। নুর হোসেন এর স্ত্রীসহ এক মেয়ে ও এক ছেলেসহ অংখ্য আত্বীয়স্বজন রয়েছে।
খবর পেয়ে শনিবার সকালে মসজিদের ইমাম আল আমিন,মসজিদ কমিটির সভাপতি আহসান উল্লাহ,সাধারণ সম্পাদক মনছুর আহমদসহ তিনি জনকে আটক করে পুলিশ।
পুলিশ ও নিহতের স্বজনরা জানান, স্থানীয় মনছুর আহমদ জামে মসজিদের বিভিন্ন সময়ে উগ্রবাদী বয়ান করতেন ইমাম মো:আল আমিন।এছাড়া তিনি নামাজের পর অন্য ইমামদের মতো মোনাজাত দিতেন না। এমন অভিযোগে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক শুক্রবার জুমার নামাজের পর ইমামকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলে ইমাম উত্তেজিত হয়ে তাকে মসজিদ থেকে বের হয়ে যেতে বলেন। এনিয়ে ইমাম পক্ষ ও কমিটি পক্ষ দ্বিধাবিভক্ত হন। পরে তাদের দু পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে মোহাম্মদ নুর হোসেন, জাকির হোসেনসহ আরো দুজন আহত হন। পরে নুর হোসেনেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেলে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার সকাল ৭টায় মৃত্যু হয়।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা লোকমান হোসেন জানান,নিহত নুর হোসেনের মরদেহ ঢাকা থেকে নিয়ে আসলে ময়না তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এছাড়া ওই ঘটনায় মসজিদের ইমামকে আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

Leave A Reply