শৈলকুপায় মাদকদ্রব্য ও জুয়া খেলা বন্ধে বক্তব্য রাখায় দুই ভাইকে পিটিয়ে হাসপাতালে ভর্তি

0

সুজন বিশ্বাস শৈলকুপা ঝিনাইদহ প্রতিনিধি :


মাদকদ্রব্য বিক্রয় ও জুয়া খেলা বন্ধে  ভূমিকা রাখায় ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আওয়ামীলীগ নেতা ও তার বড় ভাইকে পিটিয়েছে মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়াড়ীরা। 
ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ত্রিবেনী ইউনিয়নের পদমদী গ্রামে। হামলায় আহত ত্রিবেনী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি পদমদী গ্রামের কাজী রবিউল ইসলাম মেম্বর ও তার বড় ভাই কাজী আব্দুর রশিদ শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত আওয়ামীলীগ নেতা রবিউল মেম্বর জানান, শুক্রবার সকালে ত্রিবেনী ইউনিয়ন বোর্ডে মাদক ও জুয়া বিরোধী মিটিংয়ে তিনি বিশেষ বক্তব্য রাখেন। এরপর দুপুরে যুগিপাড়া গ্রামের রেন্টুর নেতৃত্বে সুজন, হানেফ, সুরুজ, চুন্টু, সুজায়েত ও দবিরসহ ৮/১০ জন লোক পদমদী গ্রামে তার বাড়িতে ঢুকে হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ী মারধর শুরু করে। সেসময় তার পরিবারের লোকজন বাধা দিলে বড় ভাই রশিদকেও বেধড়ক মারপিট করে।
এ ঘটনায় তিনি হামলাকারী মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়াড়ীদের নাম উল্লেখ করে শৈলকুপা থানায় মামলার প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন।
ঘটনার বিষয়ে অভিযুক্ত মিজানুর রহমান রেন্টু জানায়, সামাজিক কোন্দলের কারনে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। হামলার সময় সে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন না, তবে হামলাকারীরা তার সামাজিক দলের লোক বলে স্বীকার করেন।  
ত্রিবেনী ইউপি চেয়ারম্যান, জহুরুল হক খান জানান, শুক্রবার সকালে ত্রিবেনী ইউনিয়ন বোর্ড অফিসে মাদক ও জুয়া বিরোধী মিটিংয়ে রবিউল ইসলাম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাসহ বক্তব্য রাখেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদক কারবারী ও জুয়াড়ীরা বাড়িতে হামলা চালিয়ে দুই সহোদরকে আহত করেছে। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তিনি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন ও হামলাকারীদের শাস্তির দাবী জানান।
শৈলকুপা থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে রামচন্দ্রপুর ক্যাম্পের পুলিশ পাঠানো হয়েছিলো। তবে যে কারনেই আওয়ামীলীগ নেতার উপর হামলা হোক, লিখিত অভিযোগ পাওয়া মাত্রই দোষীদের গ্রেফতার পূর্বক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

j-thirteen,khulna

Leave A Reply

Pinterest
Print