সাহারানপুর দাঙ্গায় বিজেপির সংসদ সদস্য অভিযুক্ত

0

76b620d7f7e3ae667716ea7deee98d0f_XLআন্তর্জাতিক ডেস্ক

 রোববার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী আখিলেশ যাদবের কাছে সাহারানপুর দাঙ্গার তদন্ত রিপোর্ট পেশ করা হয়। রিপোর্টে প্রশাসনিক গাফিলতির পাশাপাশি বিজেপির স্থানীয় সংসদ সদস্য রাঘব লহ্মণ পালের বিরুদ্ধে মানুষকে উত্তেজিত করার অভিযোগ আনা হয়েছে। এছাড়া, রমজান মাসে বিতর্কিত জমিতে নির্মাণকাজ করা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে।

গত ২৬ জুলাই একটি জমি দখলকে কেন্দ্র করে মুসলমান এবং শিখদের মধ্যে দাঙ্গায় ঘটনাস্থলেই ৩ জন নিহত হয়। আহত হন অনেকে। বহু দোকানপাটেও আগুন লাগানো হয়। সাহারানপুর দাঙ্গার পেছনে আরএসএস ও বিজেপি জড়িত বলে বলে অভিযোগ আনেন বিএসপি নেত্রী মায়াবতী৷

এ ঘটনা তদন্তে মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের নির্দেশে ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়। রাজস্বমন্ত্রী শিবপাল সিং যাদবের নেতৃত্বে গঠিন কমিটির অন্য সদস্যরা ছিলেন কারিগরি শিক্ষামন্ত্রী শিবকান্ত ওঝা, পল্লীউন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী অরবিন্দসিং গোপ, যুব কল্যাণ পর্ষদের ভাইস প্রেসিডেন্ট আশু মালিক এবং সমাজবাদী পার্টির মোরাদাবাদ জেলা সভাপতি হাজী ইকরাম কুরেশি।

প্রকাশিত রিপোর্টে শিবপাল কমিটি স্পষ্ট জানিয়েছে-“প্রশাসনিক ব্যর্থতার জন্য এই দাঙ্গা হয়েছে। দোষী কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হোক। তাহলে তাদের মধ্যে এই বার্তা পৌঁছাবে যে, অন্যায় করলে সরকার কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।”

তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশের পর সমাজবাদী পার্টির রাষ্ট্রীয় মহাসচিব নরেশ অগ্রবাল বলেছেন, “দাঙ্গায় বিজেপি সংসদ সদস্যের ভূমিকার বিষয়টি প্রকাশ্যে এসেছে। বিজেপি ধোওয়া তুলসি পাতা নয়। আমি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে বলতে চাই, আপনি লালকেল্লা থেকে ভাষণে  সাম্প্রদায়িকতাকে ১০ বছরের জন্য বন্ধ রাখার কথা বলেছিলেন কিন্তু আপনার নিজের দলের সাম্প্রদায়িকতা বন্ধ করতে পারছেন না। এটা তো চোর কে চুরি করতে বলে গৃহস্থকে সজাগ থাকতে বলার মতই। এই দ্বিমুখী নীতি চলবে না। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে এ ব্যাপারে স্পষ্ট নীতি ঘোষণা করতে হবে।”

এদিকে, বিএসপি সুপ্রিমো মায়াবতী বলেছেন, সাহারানপুর দাঙ্গা রিপোর্ট শুধুমাত্র ‘পেপারওয়ার্ক’। দাঙ্গার সঙ্গে বিএসপি যুক্ত নয়।

Leave A Reply