রংপুর ও গাইবান্ধায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২২

0

বিডিপত্র ডেস্ক: রংপুর ও গাইবান্ধায় দুটি পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ২২ জন নিহত হয়েছে।
ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে গাইবান্ধার পলাশবাড়ি উপজেলায় একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে ১৬ জন নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন।

শনিবার ভোরে উপজেলার মহেশপুর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, ভোর ৫টার দিকে পলাশবাড়ীর মহেশপুর এলাকায় ঢাকা থেকে পঞ্চগড়গামী আলম এন্টারপ্রাইজ নামে একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ৯ জন এবং হাসপাতালে নেওয়ার পথে আরও ৭ জন মারা যায়। গুরুতর আহতদের উদ্ধার করে পলাশবাড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, রংপুর মেডিকেল কলেজ ও বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানাযায়, রংপুরে ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফোরার পথে ৬ পোষাককর্মী নিহত হয়েছে। বালু বোঝাই ট্রাক একটি বিআরটিসি বাসকে ধাক্কা দিলে এঘটনা ঘটে। এতে বেশকজন আহত হয়েছে । আহতদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার ভোররাতে সদর উপজেলার সলেয়াশাহ্ এলাকায়। নিহতদের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন নিশাত(২০) এবং সাজ্জাদ(১৯) । বাকিদের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীর সূত্রে জানা যায়, শনিবার ভোররাতে দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা বিআরটিসি’র দোতলা ঈদ স্পেশাল বাস রংপুর সদর উপজেলার সলেয়াশাহ্ এলাকায় এলে চাকা পাংচার হয়ে যায়। নির্জন ওই জায়গায় চাকা মেরামতের সময় সিগন্যাল লাইট না জ্বলে থাকায় পেছন থেকে একটি বালু বোঝায় ট্রাক ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে বাসে থাকা দুই নারীসহ ৬ জন নিহত হয়। নিহতের লাশ তারাগঞ্জ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে রাখা হয়েছে। আহত ৫ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত সবাই গার্মেন্টস কর্মী ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফিরছিল বলে জানিয়েছে হাইওয়ে পুলিশ।

Leave A Reply

Pinterest
Print