Bangladesherpatro.com

কাউনিয়ায় অরক্ষিত ১১ রেল ক্রসিং এখন মরন ফাঁদ

374


কাউনিয়া প্রতিনিধি, রংপুরঃ
রংপুরের কাউনিয়া উপজেলায় ব্রিটিশ আমলের কাউনিয়া রেল জংশন ষ্টেশনটি উত্তর জনপদের একটি অন্যতম রেল যোগাযোগের মাধ্যম। জনপ্রিয় এ রেল পথে উত্তরের ২ জেলা কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটসহ রংপুর বিভাগের ৮ জেলার মানুষ রাজধানী ঢাকা ছাড়াও দেশের নানা জায়গায় যাতায়াত করে। প্রতিদিন ঐতিহ্যবাহী কাউনিয়া রেল জংশন ষ্টেশন দিয়ে ১২টি আন্তঃনগর ট্রেন মিলে ২৪টি ট্রেন যাতায়াত করছে।

নিরাপদ রেল ভ্রমনের এ ট্রেন যাতায়াতের সড়কে ১১টি রেল ক্রসিং এখন মরন ফাঁদ। রেল ক্রসিং গুলোর রাস্তা দিয়ে দিন-রাত বিভিন্ন যানবাহন, মানুষ ও গবাদী পশু চলাচল করলেও রেল ক্রসিং গুলোতে নেই রেল কর্তৃপক্ষের কোন পাহারাদার বা গেটম্যান তাই হরহামেশাই ঘটছে দুর্ঘটনা আর প্রাণহানী।

ইতোমধ্যে রেল দুর্ঘটনা ঘটেছে উপজেলার থানা রেল ক্রসিং, তকিপল হাট রেলগেট, গের্দ্দ বালাপাড়া রেল ক্রসিং, খোপাতী তপসীডাঙ্গা রেল ক্রসিং, পাঞ্জরভাঙ্গা রেল ক্রসিং, শহীদবাগ রেল ক্রসিং, বুদ্ধির বাজার বাধের রাস্তা রেল ক্রসিং, মহেশা রেল ঘুন্টি, মৌল রেল ক্রসিং, বল্লভবিষু রেল ক্রসিংয়ে।

এ সব রেল ক্রসিং এখন মানুষ ও গবাদী পশুর মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। অথচ এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ সম্পূর্ণ নিরব। এ সংক্রান্ত কাউনিয়া উপজেলা পরিষদের মাসিক সভায় অনেক আলোচনা-সিদ্ধান্ত হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। সভার সিদ্ধান্তের কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে, কিন্তু পাওয়া যায়নি এখনো কোন ভাল ফল।

কাউনিয়া রেল জংশন ষ্টেশন মাস্টার আব্দুর রশীদ জানান, প্রয়োজনীয় ৪২ জন জনবলের বিপরীতে চুক্তিভিত্তিকসহ ২৬ জন দায়িত্ব পালন করছে। এ বিষয়ে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলেও জানান তিনি। এলাকাবাসী বলছেন, এক অফিস থেকে আরেক অফিসে জানাজানি চলবে আর কতদিন? তবে কী এভাবেই চলবে একের পর এক দুর্ঘটনা আর প্রানহানী!

Leave A Reply

Your email address will not be published.